এসো হাদিস পড়ি ?
এসো হাদিস পড়ি ?
হাদিস অনলাইন ?

দাজ্জাল থেকে প্রতিরক্ষা

হাদিস - ১৫৭২
হযরত আবু উমামা বাহেলী রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন দাজ্জাল দুনিয়ায় কিছুই অবশিষ্ট রাখবে না। সবকিছুই সে শেষ করে দিবে। আর সে মক্কা মদীনা ব্যতীত সকল এলাকার উপর বিজয় লাভ করবে। কেননা সে মক্কা মদীনার ছিদ্র বা পথ সমূহ থেকে কোন ছিদ্র বা পথে আসতে পারবে না। যেই ছিদ্র বা পথ দিয়ে সে আসতে চাইবে সেখানেই তার সাথে স্বীয় তরবারী নিয়ে প্রস্তুত থাকা ফেরেশতার সাথে সাক্ষাত হবে। এমনকি দাজ্জাল তরীবে আহমারের নিকট এবং অনাবাদী যমিন শেষ প্রান্তে এবং সিউলের সমষ্টির স্থানে অবস্থান নিবে। অতপর মদীনা তার অধিবাসীদের নিয়ে তিন বার ঝাঁকি দিবে। যার ফলে কোন পুরুষ মুনাফেক এবং কোন মহিলা মুনাফেক মদীনায় অবশিষ্ট থাকতে পারবে না। সকলেই তার দিকে বাহির হয়ে যাবে। আর সেদিন মদীনা তার থেকে নাপাকি বা খারাবি শেষ করবে যেমনিভাবে কিবর (এক ধরনের গাছ) লোহার খারাবি দূর বরে। অতপর উম্মে শারীক বললেন ঐসময় মুসলমানগণ কোথায় থাকবে? তিনি বললেন বাইতুল মুকাদ্দাসে। দাজ্জাল বাহির হবে অতপর তাদেরকে আটকাবে। এমনকি তার নিকট ঈসা আলাইহিস সালামের অবতরণের খবর আসবে। তখন সে পালায়ন করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭২ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ -
আমাদের বলুন Damra ইয়াহিয়া ইবনে আবী 
আমর Alsabana আমর ইবনে আব্দুল্লাহ আল - হাদরামী 
আবু Amama Baahili থেকে আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে , 
বললেন রসূল এর আল্লাহ শান্তি হতে তার উপর , তাকে খ্রীষ্টশত্রু থেকে থাকে না আইন ছাড়া স্থল কিছুই সঙ্গে তাকে এবং পরাজিত 
তাকে শুধুমাত্র মক্কা ও মদিনা , এটা হয় সংসর্গ না সঙ্গে খোঁজ Onkabha শুধুমাত্র বাড়ানো থেকে তার কাছে রাজা Msalta তার তলোয়ার 
এমনকি অবতরণ যখন লাল Trab যখন আস্ত জলাভূমি যখন বন্যা সম্প্রদায় এবং তারপর ঝাঁকান শহর সঙ্গে 
তার দেশের মানুষের তিনটি কম্পনের থাকা না একটি ভণ্ড এবং একটি ভণ্ড , কিন্তু কাছে এসে শহর Vti যে প্রতিদিন 
ধাতুমল যা দাম্ভিকতা লোহা ধাতুমল অস্বীকার , এবং যে দিন হয় বলা দিন এর পরিত্রাণের , 
তিনি বলেন , 
বা অংশীদার যেখানে মুসলমানদের যে প্রতিদিন 
তিনি বলেন, পবিত্র মন্দিরের বাড়ীতে এসে তাদের ঘেরাও করে তিনি নিচে যান এবং 
পালিয়ে যেতে বলা হয়
হাদিস - ১৫৭৩
হযরত ইবনে উমর রাযিয়াল্লাহু আনহুমা হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন সংরক্ষিত এলাকা হল মক্কা, মদীনা, ইলয়া, এবং নাজরান। এক রাত্রে নাজরানে সত্তর হাজার ফেরেশতা অবতরণ করে। এবং পরিখা বাসীদের উপর সালাম বর্ষণ করে। এবং তারা ফিরে যায় আর কখনো ফিরে আসে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৩ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1573
আমাদের কাছ থেকে মুহাম্মদ বিন হারেস মুহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান বিন Albilmana বলুন 
তার পিতা 
ইবনে 'উমরের থেকে বলেন রসূল এর আল্লাহ , শান্তি পরে তার গ্রাম হতে 
মক্কা, মদিনা, Ailia এবং নাজরানের এবং সংরক্ষিত কেবলমাত্র রাত নেমে আসতে মধ্যে সত্তর হাজার রাজা নাজরানের 
কাছে হস্তান্তর মানুষ এর খাঁজ এবং তারপর ফিরে আসতে না না
হাদিস - ১৫৭৪
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন দাজ্জাল থেকে দূর্গ হল ইবনে ফাতরাস নদী।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৪ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1574
আমাদের বলুন বাকি তিনি বলেন 
সাফওয়ান আমাকে Shurayh Obeid বিন আবু Zahrieh বলেন 
কা'ব বলেন কেল্লা খ্রীষ্টশত্রু নদী 
ছেলে Aftrs
হাদিস - ১৫৭৫
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন যখন দাজ্জাল বাহির হবে তখন মুসলমানদের দূর্গ হবে বাইতুল মুকাদ্দাস।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৫ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1575
ইবনে ওয়াহাব আমাদেরকে ইয়াহইয়া ইবনে জাবের ও উযায়ের ইবনে 
কেরীব থেকে মুয়াবিয়া ইবনে সালেহ সম্পর্কে ডালের 
কথা বলে বলেন, দজ্জাল ইবনে ফাত্তদের নদী
হাদিস - ১৫৭৬
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৬ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আবু আইয়ুব 
আরাটন সম্পর্কে আমাদের বলেছিলেন যে তিনি দমদম জেল 
থেকে বেরিয়ে আসার সময় মুসলিম দালালের হিল সম্পর্কে বলেছিলেন।
হাদিস - ১৫৭৭
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন বাইতুল মুকাদ্দাসের রিদা নামক এলাকা দাজ্জালের সময়ে সারা দুনিয়া এবং তার ভিতর যা আছে সব কিছুর থেকে বেশী দামি হবে। রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর এই কথার কারণে দাজ্জাল থেকে মুসলমানদের দূর্গ হল বাইতুল মুকাদ্দাস। তারা বাহির হবে না এবং পরাজিতও হবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৭ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1577
হাকাম ইবনে Nafie সার্জন যারা তাকে বলেন সম্পর্কে আমাদের বলুন 
সম্পর্কে গোড়ালি , তিনি বলেন অবস্থানে এর পবিত্র ঘর পোশাক দিন 
খ্রীষ্টশত্রু হয় বেশী ভালো বিশ্বের এবং যেখানে শব্দ এর রসূল এর আল্লাহ , শান্তি থেকে তার প্রতি কিছু হতে কেল্লা এর মুসলিম 
খ্রীষ্টশত্রু জেরুজালেম বাইরে যেও না এবং প্রভাবশালী
হাদিস - ১৫৭৮
হযরত জুনাদা ইবনে আব উমাইয়া থেকে বর্ণিত যে, তিনি রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর এক সাহাবী থেকে শুনেছেন যে, তিনি বলেছেন রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদের মাঝে খুতবা দেয়ার জন্য দাড়ালেন এবং বললেন, নিশ্চই দাজ্জাল প্রত্যেক পানি পানের স্থানে বা ঘাটে যাবে তবে চারটি মসজিদ ব্যতীত। আর উক্ত মসজিদগুলো হল মসজিদুল হারাম, মদীনার মসজিদ, তূরে সাইনা এর মসজিদ, এবং মসজিদে আকসা।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৮ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1578
জারীর আমাদের সম্পর্কে ইবনে আবদুল হামিদ বলেন 
Aldosa মনসুর মুজাহিদ Jnadp ইবনে আবী নিরক্ষরতা 
শোনা একটি থেকে মানুষ নবী , শান্তি বর্ষিত হোক মালিকদের এর 
তাকে এবং প্রতিষ্ঠিত বলছেন রসূল এর আল্লাহ , সা , বলেন যে সব manholes এর খ্রীষ্টশত্রু শুধুমাত্র 
চার মসজিদ , গ্র্যান্ড মসজিদ এবং মসজিদ এর শহর ও মসজিদ এর মাউন্ট সিনাই ও আল - আকসা মসজিদ
হাদিস - ১৫৭৯
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন যে ব্যক্তি সূরা কাহাফ যেভাবে নাযিল হয়েছে সেভাবে তেলাওয়াত করবে, তা তার মাঝে ও মক্কার মাঝে যা তা আলোকিত করে দিবে। আর যে ব্যক্তি সূরা কাহাফের শেষাংশ তেলাওয়াত করবে অতপর দাজ্জালকে পাবে, তার উপর দাজ্জাল কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৭৯ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1579
আমাদের সুফিয়ান কিয়া আবু হাশেম আবু কায়েস ইবনে Cilz উপাসকদের সম্পর্কে আমাদের বলুন 
তিনি আবু সাঈদকে 
আল - খুদরী , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে সে বলল সে গুহা থেকে পড়া , যেমন প্রকাশ করতে তাকে এবং মক্কা ও মধ্যবর্তী শয়নকামরা 
সম্প্রতি পড়া এবং তারপর উপলব্ধি খ্রীষ্টশত্রু এটা চালা করা হয়নি
হাদিস - ১৫৮০
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে সালাম রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন নিশ্চই আল্লাহ তা’আলার ফেরেশতাগণ মদীনাকে প্রত্যেক দিক হতে ঘিরে রেখেছে। মদীনায় এমন কোন ছিদ্র পথ নেই যেখানে কোন ফেলেশতা তার তরবারী প্রসারিত করে উপস্থিত নেই। অর্থাৎ প্রত্যেক পথেই ফেরেশতা নিয়োজিত আছে। সুতরাং তোমরা আল্লাহ তা’আলার ঐসমস্ত ফেরেশতাদের ভাগিয়ে দিও না, যারা তোমাদের ঘিরে আছে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮০ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1580
আবদুল্লাহ ইবনে সালাম থেকে 
স্যারহ বিন ওবায়দের আমর থেকে আল্লামা সাফওয়ানের বাকি অংশটি বলুন 
যে, আল্লাহর ফেরেশতাগণ 
নাকাব নাকাব শহরের প্রতিটি দিক থেকে পাহাড়ের পাহারা দিলেও খোদার দূতদেরকে 
বিচ্ছিন্ন করে না।
হাদিস - ১৫৮১
হযরত আসমা বিনতে ইয়াযিদ সিকন আনসারী রাযিয়াল্লাহু আনহা বলেন আমি রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কে বলতে শুনেছি যে, দাজ্জাল প্রত্যেক পানি পানের স্থান বা ঘাট চাইবে। অর্থাৎ প্রত্যেক স্থানেই যাবে। তবে দুটি মসজিদ ব্যতীত।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮১ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1581
ইয়াহইয়া ইবনে সালিম আব্দুল্লাহ বিন উসমান বিন Kthim মধ্যে 
মক্কা-এর জন্য মাস কয়েক বিন Hawshab 
জন্য নাম এর কন্যা এর বিন ইয়াযীদ Ansariya হাউজিং আল্লাহ সন্তুষ্ট হতে পারে , 
বলেন আমি শুনেছি মেসেঞ্জার এর আল্লাহ , সা বলেছেন খ্রীষ্টশত্রু হয় প্রতিটি Manhal মাত্র দুটি মসজিদ দেওয়া
হাদিস - ১৫৮২
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু বলেন যে ব্যক্তি সূরা কাহাফ যেভাবে নাযিল হয়েছে সেভাবে তেলাওয়াত করবে অতপর দাজ্জালের জন্য বাহির হবে তার উপর দাজ্জাল কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না। আর তার উপর দাজ্জালের (তার উপর প্রভাব ফেলার) কোন পথও থাকবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮২ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 158২
আমাদের ইবনে মাহদি সুফিয়ান আবু হাশেম আবু কায়েস ইবনে Cilz উপাসকদের বলুন 
থেকে 
আবু সাঈদ বলেন , যারা পড়তে গুহা এছাড়াও তারপর প্রকাশ বেরিয়ে আসেন charlatans চালা না এটা হয়নি 
তার জন্য নেই
হাদিস - ১৫৮৩
আব্দুল্ল্হা ইবনে আব্দুল্লাহ ইবনে উতবা থেকে বর্ণিত যে, আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু বলেন দাজ্জালের উপর হারাম হল যে সে মদীনার কোন ছিদ্রপথে প্রবেশ করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮৩ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1583
আমাদের মুয়াম্মার জন্য আব্দুর রাজ্জাক বলুন আল যুহরী Obeid - আল্লাহ আমাকে বলেছিলেন 
বিন আব্দুল্লাহ বিন থ্রেশহোল্ড 
আবু সাঈদ আল যে - মহরম বলেন খ্রীষ্টশত্রু প্রবেশ করতে ঘোমটা 
শহর
হাদিস - ১৫৮৪
হযরত আবু বাকরা রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সা, বলেন পৃথীবিতে এমন কোন গ্রাম নেই, যেখানে দাজ্জাল পৌছবে না এবং ভীতি সন্ত্রস্ত করবে না। তবে সে মদীনায় প্রবেশ করতে পারবে না, এবং ভীতি সন্ত্রস্ত করতে পারবে না। কারণ মদীনার প্রত্যেক ছিদ্র পথে দুইজন ফেরেশতা থাকবে। সেখান থেকে তারা মাসীহের ভীতি দূর করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮৪ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1584
যুহরী বলেন তালহা বিন আব্দুল্লাহ বিন আউফ 
আবু রীল 
নবী , সা , বলেন শহরে হয় শুধুমাত্র তাদের পরিচায়ক না এর উপর ভয়াবহ খ্রীষ্টশত্রু শুধুমাত্র শহর 
সম্পর্কে তার ঘোমটা খোঁজ Malakan Ivban সব ভয়াবহ এর খ্রীষ্ট
হাদিস - ১৫৮৫
হযরত আমর ইবনে সুফিয়ান সাকাফী জনৈক এক আনসারী সাহাবী থেকে বর্ণনা করেন। তিনি রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর কতিপয় সাহাবী রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন দাজ্জাল মদীনার ছিদ্র পথে আসবে অথচ তার মদীনার কোন ছিদ্র পথ দিয়ে প্রবেশ করা হারাম। অতপর দাজ্জালের দিকে মদীনার প্রত্যেক পুরুষ মুনাফেক ও মহিলা মুনাফেক বাহির হয়ে যাবে। অতপর তারা সিরিয়ারর দিকে পালায়ন করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮৫ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1585
যুহরী বলেন , এবং আমার আমর বলেন 
সম্পর্কে ইবনে আবী সুফিয়ান Althagafi একটি থেকে মানুষ আনসার 
কিছু সাহাবী এর নবী সা 

নবী , সা] বলেন খ্রীষ্টশত্রু গাভী এবং শহর ও নিষিদ্ধ এটি লিখতে আসে 
ঘোমটা বাইরে য়েতে হবে থেকে তাকে যে মুনাফিক ও কপট বিশ্বাসিনী এবং তারপর শাম সামনে দিতে
হাদিস - ১৫৮৬
হযরত আসমা বিনতে ইয়াযিদ আনসারী রাযিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত তিনি বলেন আমি রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কে বলতে শুনেছি যে, সেদিন ক্ষুদা নিবারণের জন্য মুমিনগণ খাদ্য গ্রহণ করবে যা আকাশবাসীরা গ্রহণ করে তাসবীহ ও তাকদীস দ্বারা। অর্থাৎ আল্লাহ তা’আলার যিকির ও তার পবিত্রতা বর্ণনা করার দ্বারা।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮৬ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
মুয়াম্মার সম্পর্কে বলেন 
জন্য কাতাদা মাস এর বিন Hawshab 
জন্য নাম এর কন্যা এর বেশি Ansariya শুনে নবী , শান্তি বর্ষিত হোক 
তাঁর বলে Adzee বিশ্বাসীদের যে প্রতিদিন ক্ষুধা Adzee মানুষ এর স্বর্গ প্রশংসা, পবিত্রতা
হাদিস - ১৫৮৭
হযরত হাসান রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন সেদিন মুমিনদের খাদ্য হবে তাসবীহ তথা আল্লাহ তা’আলার যিকির, তাহমীদ তথা আল্লাহ তা’আলার প্রশংসা, তাহলীল তথা আল্লাহ তা’আলার একত্বতা, তাকদীস তথা আল্লাহ তা’আলার মহানত্ব, এবং তাকবীর তথা আল্লাহ তা’আলার বড়ত্ব।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮৭ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1587
হযরত আবু সুফিয়ান থেকে মুহাম্মাদ ইবনে ফাদিলের বর্ণিত হাদিসে বলা হয়েছে যে, 
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম 
তাঁর উপর বিশ্বাসীদের খাবার তাসবীহ ও তাহমীদ সম্পর্কে এবং প্রশংসা ও পবিত্রতা ও জুম
হাদিস - ১৫৮৮
হযরত ইবনে উমর রাযিয়াল্লাহু আনহুমা রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে বর্ণনা করেন যে, তিনি বলেন দাজ্জালের সময়ে মুসলমানদের খাদ্য কি হবে? রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন ফেরেশতাদের খাদ্য। তারা বললেন ফেরেশতারা কি খায়? রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন তাদের খাদ্য হল তাদের তাসবীহ ও তাকদীস দ্বারা কথা বলা। অর্থাৎ যিকির আযকার করা। সুতরাং ঐদিন যাদের কথন হবে তাসবীহ ও তাকদীস দ্বারা আল্লাহ তা’আলা তাদের থেকে তাদের ক্ষুধা নিবারণ করে দিবেন। তার আর ক্ষুধার ভয় পাবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১৫৮৮ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 1588
একবার অনেক বিন জন্য আমাদের সাথে হাকাম ইবনে Nafie বিন সাঈদ সিনান আবু Zahrieh বলুন 
ইবনে উমর যে নবী , শান্তি হতে তার উপর , তিনি বলেন 
মুসলমানদের 
কি খাবার বিশ্বাসীদের মধ্যে সময় এর খ্রীষ্টশত্রু , 
তিনি বলেন খাদ্য ফেরেশতাগণ 
বলেন বা ভোজন 
ফেরেশতাগণ 
তাদের খাদ্য , বলেন তাদের যুক্তি দিয়ে প্রশংসা, পবিত্রতা , এটি ছিল এলাকায় যে প্রতিদিন প্রশংসা 
, পবিত্রতা এর ঈশ্বর ক্ষুধা সম্পর্কে যেতে , ভয় পায় না করতে ক্ষুধায় মারা 
বংশদ্ভুত এর যীশু পুত্র এর মেরি , শান্তি হতে তার উপর 
ও তা