এসো হাদিস পড়ি ?
এসো হাদিস পড়ি ?
হাদিস অনলাইন ?

একটি আরবি শব্দ ডাবল ক্লিক করে তার অভিধান এন্ট্রি দেখায়
হাদিস - ২১৪
হযরত আবুল মুহাল্লাবও আবু উসমান রাযি থেকে বর্নিত, তারা উভয়জন বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, যে লোক ফেৎনা কালীন উটের বহর লালন পালন করবে, কিংবা বিশাল সম্পদ গড়ে তুলবে গরীব কিংবা নিঃস্ব হয়ে যাওয়ার ভয়ে, সে কিয়ামতের দিন আত্নসাৎকারী হিসেবে আল্লাহ তাআলার সাথে সাক্ষাৎ করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২১৪ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আবু marauding মানের সুরক্ষিত সম্পর্কে আমাদের বলুন 
বিন Rvaap সালামি 
আবু Muhallab ও আবু উসমান বলেন, রসূল এর আল্লাহ , শান্তি বর্ষিত হোক 
তাঁর অ্যাপল সেই সময় এবলা বা ধন বা Gfara চেনাশোনা নেন জন্য ভয় এর ঈশ্বর হত্যা 
পরাক্রমশালী ডে এর কেয়ামতের Khabaa Galla
হাদিস - ২১৫
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত আবু হুরায়রা রাযি থেকে বর্ণিত, তিনি রাসূলুল্লাহ সাঃ থেকে বর্ণনা করেন, ফেৎনা কালীন হাওদা বিশিষ্ট একটি উট একলক্ষ বড় শহর থেকে উত্তম হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২১৫ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন ছেলে এর থেকে দান মুসলিম বিন কাতাদা থেকে আলী 
ইবনে আল Musayyib 
আবু Hurayrah থেকে , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে নবী , সা , বলেন উট 
Mguetbh যে প্রতিদিন হয় কম বেশী ভালো চেয়ে এক লাখ হ্যামলেটসের
হাদিস - ২১৬
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রাযি থেকে বর্ণিত, তিনি এরশাদ করেন, ফেৎনা কালীন সর্বোত্তম সম্পদ হবে, উন্নতমানের অস্ত্র এবং সুস্থ সবল ঘোড়া। যার উপর আরোহন করে বান্দা যেখানে খুশি সেখানে যেতে পারবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২১৬ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন পুত্র এর সুফিয়ান সালামা থেকে দান 
আবু Azaara থেকে বিন Kuhayl 
আবদুল্লাহ বলেন শ্রেষ্ঠ টাকা যে প্রতিদিন মধ্যে পক্ষে একটি এর অস্ত্র এবং ঘোড়া সালেহ 
তাকে কাটানো যেখানে ক্রীতদাস এখনও
হাদিস - ২১৭
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি রাসূলুল্লাহ সাঃ থেকে বর্ণনা করেন, তিনি বলেন অতি সত্ত্বর এমন এক যুগ আসবে যখন মুসলমানদের জন্য সর্বোত্তম সম্পদ হবে বকরির পাল, যার সাথে সেই মুসলমান পর্বতের উচু স্থানে অবস্থান করবে। যেখানে বৃষ্টি ও দানা পানির সু ব্যবস্থা থাকবে এবং সে লোক তার দ্বীন সহকারে যাবতীয় ফেৎনা থেকে পালিয়ে থাকতে পারবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২১৭ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন ইয়াহিয়া ইবনে সাইদ থেকে আব্দুল ওয়াহাব Althagafi বলেন করার 
তার পিতা থেকে আমাদের আব্দুর রহমান ইবনে আব্দুল্লাহ ইবনে আবী Sasap 
আবু সাঈদ সন্তুষ্টি থেকে এর 
ঈশ্বর সঙ্গে থেকে তাকে নবী , শান্তি হতে তার উপর বললেন হয় সম্পর্কে করা সেরা টাকা Amrye মুসলিম ভেড়া 
ডবল দ্বারা অনুসরণ পর্বত ও অবস্থানে ব্যাস উইভার ধর্ম রাষ্ট্রদ্রোহের
হাদিস - ২১৮
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি রাসূলুল্লাহ সাঃ থেকে হাদীস বর্ননা করেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেন, ফেৎনার সময় সব চেয়ে নেককার মানুষ হচ্ছে ঐ লোক যে অনেক গুলো বকরী নিয়ে পর্বতের উচুঁ স্থানে চলে যায় এবং লোকজনের যাবতীয় ফেৎনা থেকে নিজেকে দুরে রাখে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২১৮ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের মুহাম্মদ বিন বলুন 
তার বাবার কাছ থেকে হারেস মুহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান বিন Albilmana 
ইবনে উমর থেকে যে 
নবী সা , বলেন সবচেয়ে সুখী মানুষ শত্রুতা প্রভু ইচ্ছুক , এ শীর্ষ একটি এর থেকে পর্বত পশ্চাদপসরণ 
খারাপ এর মানুষ
হাদিস - ২১৯
হযরত তাউস থেকে বর্নিত তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেন, ফেৎনা কালীন সর্বোত্তম মানুষ হচ্ছে, যে লোক তার ঘোড়ার লাগাম ধারন করে দুশমনের দিকে এগিয়ে যায় এবং দুশমনের অন্তরে ভয়ভীতির সঞ্চার করে আর নিজেও দুশমনকে ভয় পায়। তেমনি ভাবে ঐ লোক সর্বোত্তম, যে জনসমাগম স্থল ত্যাগ পূর্বক তার দায়িত্বে থাকা আল্লাহ তাআলার যাবতীয় হক আদায় করে যায়।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২১৯ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন পুত্র এর মুয়াম্মার Tawoos এর সুখী ছেলে 
তার বাবার কাছ থেকে তিনি বলেন : 
রাসূল এর আল্লাহ , সা ভাল মানুষ প্রলোভন থেকে নেওয়া একটি মানুষের সঙ্গে একটি ঘোড়া ভয় পাই শত্রু 
এবং Akhiphunh বা exclave মানুষ অধিকার ঈশ্বর তাকে বাড়ে
হাদিস - ২২০
হযরত ইবনুল খায়সাম রাযি থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেন, ফেৎনা কালীন সর্বোত্তম লোক হচ্ছে ঐ ব্যক্তি যে আল্লাহর রাস্তায় যুদ্ধ করতে গিয়ে গনীমতের মাল দ্বারা নিজের জিবিকা নির্বাহ করে। তেমনি ভাবে ঐ ব্যক্তি উত্তম, যে পর্বতের উচূ স্থানে আরোহন করে বকরীর মাধ্যমে অর্জিত আয় দ্বারা জীবন ধারন করে যায়।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২০ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
মুয়াম্মার বলেন , এবং আমাকে বলেছিলেন আমার ছেলে Kthim 
যে রসূল এর আল্লাহ , সা , বলেন ভাল মানুষ থেকে খাওয়া শত্রুতা মানুষ ছায়া এর তার তলোয়ার 
মধ্যে পথ এর মধ্যে ঈশ্বর এবং মানুষের একটি উচ্চ - উত্থানের মাথা প্রেরিত তাঁর ভেড়া খেতে
হাদিস - ২২১
হযরত আবু ওয়ালিদ রহঃ থেকে বর্ণিত তিনি বলেন হযরত সাহাল ইবনে হুনাইফ রাযিঃ এরশাদ করেন, হে লোক সকল! তোমরা নিজেদের মনগড়া সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আন্তরিক হয়োনা। কেননা, আল্লাহর কসম! আমরা তাদের কোনো ব্যাপারে কখনো পুরোপুরি গ্রহন করবোবা। কিন্তু আমরা কেবলমাত্র সহজটাকেই প্রধান্য দিয়ে থাকি। অথচ তোমাদের এই নির্দেশের মাধ্যমে কেবল কঠিনতা ও মতানৈক্যই বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। আমি আবু জান্দালের দিন এমন এক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, যদি আমি রাসূলুল্লাহ সাঃ এর সামনা সামনি হতে পারি তাহলে অবশ্যই সে সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করব।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২১ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন পুত্র এর আশীর্বাদ 
আমাদের বলেছেন যে ঈসা ইবনে উমর আমাদের বলেছেন আবু ওয়ায়েল থেকে আমর ইবনে Murrah বলেন 
বলেন সাহল ইবনে হানিফ , হে 
মানুষ অভিযুক্ত আপনি মনে আমিই ঈশ্বর , আমরা কি Bakoaimanm কিছু মধ্যে কখনো Iqtana আমাদের Oshln নিতে 
কিছু আমরা জানতে , কিন্তু আদেশ দিলেন য়েন এটা বাড়ে না , কিন্তু তীব্রতা এবং বিভ্রান্তির , আমি আমার দেখেছি আবু 
জান্ডল এমনকি যদি আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছে আওয়াণ পাই তাহলে তাঁর উপর ঈমান আনবে
হাদিস - ২২২
হযরত হাসান বসরী রহ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, কসম সেই সত্ত্বার যার হাতে আমার প্রান! আমার সাহাবায়ে কেরাম থেকে কিছু লোককে কিয়মতের দিন আমার সামনে পেশ করা হবে। তাদের দেখার সাথে সাথে আমি চিনতে পারব, তবে কিছুক্ষন পর আমার এবং তাদের মাঝে পর্দা সৃষ্টি হয়ে যাবে। এ অবস্থা দেখে আমি বলব, হে আমার রব! আমার সাহাবী, আমার সাহাবী! আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে জবাব আসবে, তাদের সম্বন্ধে তুমি জানোনা, তোমার পর তারা কেমন বেদআত ওকার্যক্রম আবিস্কার করেছিল।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২২ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের ইবনে বলুন 
আল - হিশাম ইবনে হাসান থেকে মুবারক 
আল - হাসান বলেন রসূল এর আল্লাহ , সা, যা 
আমার হাত টিকে থাকতে পারে জন্য আমাকে ডে এর কেয়ামতের ভাবেন হয় অনুষঙ্গী দ্বারা আমার এমনকি যদি আমি তাদের দেখে তাদের জানতে Achtjawa 
Donny বলে কোনো প্রভু Osaahabi Osaahabi বলছেন আপনি জানেন না কি তারা পর সৃষ্ট আপনি
হাদিস - ২২৩
হযরত আরতাত রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, সুফিয়ানী তার বিরোধীতা কারীকে হত্যা করে থাকে এবং তাকে কেটে টুকরো টুকরো করে দীর্ঘ ছয়মাস পর্যন্ত পাত্রের মধ্যে রেখে পাকাতে থাকে। বর্ণনাকারী বলেন মাশরিক, মাগরিব বাসীরা এমন কতক দৃশ্য দেখতে পাবে যা এই উম্মতের মধ্যে রাসূলল্লাহ সাঃ এর পরে খোলাফাদের যুগে সংঘটিত হবে মর্মে বর্ণনা পাওয়া যায়।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৩ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
হাকাম ইবনে Nafie সম্পর্কে আমাদের জানান ক্ষত 
বলেন Sufiani উভয় তাঁর লাঠি নিহত এবং সেগুলি প্রকাশ Oirtah থেকে 
লিফলেট ও Atboukhm Bakaddor ছয় মাস 
তিনি Almherquan দেখা হবে এবং Amorban 
বিভিন্ন 
উল্লেখ খলিফার পর রসূল এর আল্লাহ , শান্তি এই জাতির মধ্যে তাকেই দায়ী করা হবে
হাদিস - ২২৪
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রাযিঃ থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, মুসা আঃ এর উপদেষ্টাদের মত আমার পরেও কতক খলীফা আত্ন প্রকাশ করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৪ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন ঈসা ইবনে ইউনুস গ্ল্যাডিয়েটর সম্পর্কে আমাদের বিন সাইদ বলেন জনপ্রিয় চোরাই মাল 
আব্দুল্লাহ থেকে 
হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে রসূল এর আল্লাহ , শান্তি থেকে তার প্রতি কিছু হতে আমার পরে 
খলিফার এর বিভিন্ন অধিনায়ক এর মূসা
হাদিস - ২২৫
হযরত জাবের ইবনে সামুরা রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, খেলাফতের জিম্মাদারী কুরাইশের বারোজন খলীফার দায়িত্বে থাকা পর্যন্ত সেটা খুবই সম্মানিত ও সুচারু রুপে পরিচালিত হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৫ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আবু সিদ দাউদ ইবনে আবী হিন্দ সম্পর্কে আমাদের বলুন জনপ্রিয় 
জাবের ইবনে সামরা আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে তিনি বলেন রাসূল এর আল্লাহ বলবেন শান্তি হতে তার উপর এই এখনও একটি 
বারো উত্তরাধিকারী বিষয়টি দুর্মূল্য , কাঁটাগাছের সব
হাদিস - ২২৬
হযরত আবুত তোফাইল রহঃ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন, আব্দুল্লাহ ইবনে আমর আমার হাত ধরে বললেন, হে আমের ইবনে ওয়সিলা! কাব ইবনে লুআই এর বংশধর থেকে মোট বারোজন খলীফা হওয়ার পর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা নিয়ে মারাত্নক বিশৃঙ্খলা দেখা দিবে। এরপর কিয়ামত পর্যন্ত আর কোনো ইমামের উপর লোকজন ঐক্যমত পোষন করবেনা।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৬ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
ইয়াহইয়া ইবনে সালিম আব্দ 
আল্লাহ ইবনে উসমান ইবনে Kthim 
আবু পরজীবী থেকে , বলেন গ্রহণ হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর বেদি 
বলেন , 
হে আমের বিন Waathilah বারো খলিফা বিন louay গোড়ালি এবং তারপর টুসকি এবং Alnagaf যাচ্ছে না করতে পূরণ 
মানুষের ইমামের কেয়ামত পর্যন্ত
হাদিস - ২২৭
হযরত তালহা ইবনে আব্দুল্লাহ ইবনে আওফ রহঃ বলেন, আমি হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর রাযিঃ কে বলতে শুনেছি, তখন আমরা সেখনে কয়েক জন কুরাইশ উপস্থিত ছিলাম, আমাদের প্রত্যেকে কাব ইবনে লুআই এর বংশধর থেকে ছিলাম। তিনি বলেন, হে বনু কাব! তোমাদের থেকে মোট বারোজন খলীফা রাষ্রীয় ক্ষমতা গ্রহণ করবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৭ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন ছেলে এর থেকে ইবনে Hiệp মুহাম্মদ বিন দান 
যায়েদ ইবনে অভিবাসী বলেন , আমাকে বলেছিলেন তালহা বিন আব্দুল্লাহ বিন আওফ বলেন 
আমি আব্দুল্লাহ ইবনে উমর শুনেছি , পারে 
আল্লাহ সন্তুষ্ট হতে সঙ্গে বলতে আমরা হয়েছে একটি কুরাইশ গ্রুপ দ্বারা সব ছেলেদের এর গোড়ালি বিন louay বলেন , ব্যাপারে , হে 
পুত্র এর গোড়ালি এর বারো খলিফা
হাদিস - ২২৮
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাছ রাযি থেকে বর্ণিত, একদিন তার সামনে বারোজন খলীফা এবং আমীরদের সম্বন্ধে আলোচনা করা হলে তিনি বলেন, আল্লাহর কসম!নিঃসন্দেহে এর পর থেকে সিফাহ, মানসূর এবং মাহদী খলীফা হবেন। তাদের পরে এভাবে চলতে চলতে হযরত ঈসা ইবনে মারইয়াম আঃ পর্যন্ত বহাল থকবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৮ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন ওয়ালিদ বিন মুসলিম আব্দুল মালিক বিন থেকে অন্যদের 
আবি সমৃদ্ধ আমাদের Almnhal সাঈদ ইবনে জাবির বলেন 
ইবনে আব্বাস , আল্লাহ সন্তুষ্ট হতে পারে যে তারা উল্লেখ 
তাঁর বারোজন প্রেরিতকে একপাশে খলিফা এবং তারপর প্রিন্স 
ইবনে আব্বাস , এবং ঈশ্বরের যে আমরা তারপর অজাচার বলেন 
এবং আল - মনসুর এবং মাহদি ISA ইবনে Maryam প্রদান করা
হাদিস - ২২৯
হযরত হোজাইফা ইবনুল ইায়ামান রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হযরত ওসমান রাযিঃ এরপর থেকে বনু উমাইয়ার বারোজন বাদশাহ দায়িত্ব পালন করবেন। তাকে বলা হলো তারা তো খলীফা হিসেবে থাকবেন, জবাবে তিনি বললেন, না বরং তারা বাদশাহ হবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২২৯ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন Ashidin বিন সাদ ইবনে 
Hiệp খালেদ ইবনে আবী ইমরান 
হুযাইফা ইবনুল - ইয়ামন রা হতে পারে , বলেন করার ওসমান হতে 
রা বারোটি রাজা হতে পারে উমাইয়া 
তিনি উত্তরাধিকারী বলা হয় , 
বলেন এমনকি রাজাদের
হাদিস - ২৩০
হযরত সারজ আল ইয়ারমূকী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি তাওরাতে একথা পেয়েছি যে, নিশ্চয় এই উম্মতের মধ্যে বারো জন জিম্মাদার তাদের জিম্মাদারী পালন করবেন। তাদের একজন নবী হবেন। এভাবে তাদের সময় ফুরিয়ে আসলে তারা গুমরাহী ও পথভ্রষ্টতায় লিপ্ত হয়ে যাবে এবং তারা পরস্পরের বিরুদ্ধে মারামারি ওযুদ্ধে জড়িয়ে পড়বে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩০ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন আব্দুল সামাদ ইবনে আবদুল Waris, হাম্মাদ ইবনে সালামা ইবনে আতা Bahir থেকে ইবনে আবী মাউন্ট 
Obeida 
থেকে জিন Alermucy বলেন , আমি খুঁজে বাইবেল যে এই জাতির এক এর তাদের বারো সার্বিয়া 
তাদের নবী , যদি Tgua প্রস্তুতি পূর্ণ ও গোয়ার স্বাক্ষরিত , শেয়ার সহ
হাদিস - ২৩১
হযরত কাব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, নিশ্চয় আল্লাহ তাআলা হযরত ইসমাঈল আঃ এর বংশধর থেকে সর্বোত্তম হচ্ছেন, হযরত আবু বকর রাযিঃ, হযরত ওমর রাযিঃ, এবং হযরত ওসমান রাযিঃ।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩১ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
ইবনে Damra সম্পর্কে আমাদের বলুন 
আবু জিয়াদ আবু Almnhal থেকে Hozb 
থেকে গোড়ালি বলেন যে ঈশ্বর তাকে ইসমাইল দিলেন 
শান্তি ক্রুশবিদ্ধকরণ এর বারো মূল্যবোধ ও সেরা এর তাদের Okhaarham আবু বকর, ওমর ও ওসমান আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাদের
হাদিস - ২৩২
হযরত নাশু রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি হযরত কাব রহঃ কে এই উম্মতের কতক বাদশাহ সম্বন্ধে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, আমি তাওরাত নামক আসমানী কিতাবে মোট বারোজন জিম্মাদারের কথা পেয়েছি। যাদেরকে রাসূলুল্লাহ সাঃ এর পর খলীফা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩২ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন আবু marauding ইবনে আইয়াশ বলেন করার আমাদের sheikhs এর গোপন 
যে 
Ncuaa বিভিন্ন রাজাদের জন্য বলা এর হিল এর এই জাতির 
বললেন , আমি খুঁজে বাইবেল বারো সার্বিয়া 
মনে করিয়ে দেয় পর খলিফার রসূল এর আল্লাহ , সা
হাদিস - ২৩৩
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত আবু উবায়দা ইবনুল জাররাহ রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেন, এই উম্মতের প্রথম ব্যক্তি হবেন, নবুওয়ত ও রহমতের সাথে সম্পৃক্ত। এরপর হবে খেলাফত এবং রহমতের সাথে সংশ্লিষ্ট, অতঃপর পরস্পর বিরোধী বাদশাহগন রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনকারী হবেন। তাদের প্রাথমিক অবস্থায় পরস্পর বিরোধী হলেও রহমত থাকবে। অতঃপর টেকো মাথার অত্যাচারী শাসকের আত্নপ্রকাশ হবে। যাদের মধ্যে কোনো আন্তরিকতা থাকবেনা। পরস্পরের বিরুদ্ধে মারামারি হানাহানিতে লিপ্ত থাকবে। একে অপরের হাত পা কেটে নিবে এবং সম্পদ ছিনিয়ে নিতে থাকবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৩ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন বাকি এর 
ইবন আল - ওয়ালিদ এবং সাফওয়ান ইবনে আমর আব্দ আল থেকে আবদুল কুদ্দুস - রহমান ইবনে জাবের ইবনে Nufayr 
আবু থেকে 
Abeida রা হতে পারে , এক বলেন এর তাদের , বলেছেন রসূল এর আল্লাহ , সা প্রথম এর এই 
জাতি 'র ভবিষ্যদ্বাণী ও রহমত তারপর সফল ও করুণা এবং তারপর রাজা Edaudha বলেন এক এর তাদের কামড়ে ও করুণা তারপর যথাসাধ্য এর 
পালকহীন এক মধ্যে যা এর সাথে সম্পর্কিত করার ধর্মঘট ঘাড়ে এবং হাত ও পায়ে কেটে নিয়ে যাওয়া 
টাকা
হাদিস - ২৩৪
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ রাযিঃ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেন, নিঃসন্দেহে উক্ত দায়িত্বটি নবুওয়ত ও রহমত হিসেবে আত্নপ্রক্শ পেয়েছে, অতঃপর খেলাফত ও রহমত হিসেবে পরিবর্তন হয়েছে। এরপর সেটা পরস্পর বিরোধীতাকারী বাদশাহদের দায়িত্বে আসলেও পরবর্তী জালেমও অনর্থক কাজ হিসেবে আখ্যায়িত হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৪ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন পুত্র এর খালিদ বিন ইয়াযীদ বিন জন্য ইবনে Lahee'ah থেকে দান বলল আবু হিলাল 
হুযাইফা ইবনুল - ইয়ামন রা হতে পারে , বলেন রসূল এর আল্লাহ , সা যে এই 
ব্যাপার লাগলেন করার ভবিষ্যদ্বাণী ও রহমত তারপর হতে একটি ধারাবাহিকতা ও করুণা এবং তারপর রাজা Edaudha মদ্যপান হতে 
ও রেশম ব্যাপারে পরা যেমন জায়েয মুরগির এবং তারা বিজয়ী হবে এবং ঈশ্বরের কমান্ড তাদের কাছে আসে পর্যন্ত সংরক্ষণ করা হবে
হাদিস - ২৩৫
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত হোজাইফা ইবনুল ইয়ামান রাযিঃ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন, রাসলূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, নিঃসন্দেহে উক্ত জিম্মাদারী নবুওয়ত ও রহমত হিসেবে শুরু হয়েছিল, অতঃপর খেলাফত এবং রহমত হিসেবে পরিবর্তন হবে। এরপর সেটা পরস্পর বিরোধীতা কারী বাদশাহ হিসেবে বহাল থাকবে। যারা মদ পান করবে, রেশমী পোশাক পরিধান করবে, যিনা ইত্যাদি বৈধ মনে করবে। এভাবে তারা সাহায্যপ্রাপ্ত হবে রিযিক পেতে থাকবে এবং সেটা কিয়ামত পর্যন্ত চলবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৫ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
ইয়াহইয়া ইবনে বলল আল - আত্তারের আইয়ুব আবু কাতাদা শিবা 
আবু Obeida ইবনে থেকে 
জাররাহ রা হতে পারে বলেন : রাসূল এর আল্লাহ , সা প্রথম এর এই জাতির এর ভবিষ্যদ্বাণী 
ও রহমত , এবং করুণা উত্তরাধিকার এবং তারপর একটি রাজা Edaudha তারপর বীজগাণিতিক এবং নিরর্থক হয়ে
হাদিস - ২৩৬
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর রাযিঃ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন দ্বিতীয় খলীফা ওমর ইবনুল খাত্তাব রাযিঃ এরশাদ করেন, যে দিন থেকে আল্লাহ তাআলা উক্ত জিম্মাদারী অর্পন করেছেন সেটা শুরু হয়েছে, নবুওত ও রহমতের মাধ্যমে। পরবর্তীতে সেটা রহমত ও সুলতানে পরিনত হয়। এরপর সেটা বাদশাহ ও রহমতে পরিবর্তন হয়, আবারো খেলাফত ও রহমতে পরিনত হয়, এরপর সুলতান ও রহমতে পৌছে যায়, অতঃপর বাদশাহ ও রহমতে প্রবর্তন হবে। এরপর এমন কতক ন্যাড়া মাথা বিশিষ্ট জালেম বাদশাহ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা গ্রহন করবে যারা গাধার ন্যায় একে অপরকে কামড়াতে থাকবে এবং আক্রমন করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৬ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন রেফারি 
বিন Nafie Albehrana অনেক বিন সময় বাবা গাছ জন্য আমাদের সাথে আবু Zahrieh থেকে সাঈদ ইবনে সিনান বলেছেন 
হাদরামী 
থেকে ইবনে ' উমরের বলেন ,' উমর ইবনুল - খাত্তাব , আল্লাহ সন্তুষ্ট হতে পারে ঈশ্বর শুরু যে এই 
হল দিন প্রবর্তিত দ্বারা ভবিষ্যদ্বাণী ও রহমত তারপর ফেরৎ উত্তরাধিকার, দয়া এবং কর্তৃত্ব ও করুণা এবং তারপর একটি রাজা ও করুণা এবং তারপর 
ফিরে উত্তরাধিকার এবং তারপর করুণা এর কর্তৃত্ব ও করুণা, করুণা , এবং তারপর একটি রাজা তারপর Ghebroh পালকহীন তাদের Atkadmon 
Tcaddam গাধার
হাদিস - ২৩৭
হযরত ইয়াহইয়া ইবনে আবু আমর আশ শায়বানী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি হযরত কাব রহঃ কে বলতে শুনেছি, এই উম্মতের প্রথম ভাগে নবুওয়ত এবং রহমত থাকবে, অতঃপর সেটা খেলাফত এবং রহমতে প্রবর্তন হবে। এরপর সুলতান এবং রহমতের সাথে সংশ্লিষ্ট জিম্মাদার থাকলেও পরবর্তীতে জালেম বাদশাহ ক্ষমতসীন হবে। এ রকম বাদশাহ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করলে জমিনের ভিতরের অংশ উপরের অংশ থেকে উত্তম হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৭ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের ইয়াহিয়া ইবনে আবী আমর Alsabana থেকে Damra ইবনে Hozb বলুন বলেন , 
আমি শুনেছি হিল এর এই জাতির বলে প্রথম ভবিষ্যদ্বাণী, দয়া এবং করুণা এর উত্তরাধিকার এবং তারপর সুলতান এবং তারপর করুণা এর রাজা এর 
অদৃষ্টবাদ যে Fbtun পৃথিবী যে প্রতিদিন হয় তাকে আবার বেশী ভালো
হাদিস - ২৩৮
হযরত কাব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, এ উম্মতের জন্য এমন কতক খলীফা নিযুক্ত থাকবে, যারা দীর্ঘদিন পর্যন্ত খেলাফতের জিম্মাদারী পালন করবে। তারা লোকজনকে যাবতীয় রসদ পত্র সরবরাহ করবে এবং কর ও জিযিয়া গ্রহন করবে। এই অবস্থা হযরত ঈসা আঃ এর আগমন পর্যন্ত চলবে। তিনি তাদের সবাইকে একত্রিত করবেন। অতঃপর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা হাত ছাড়া হয়ে যাবে।
সংরক্ষণ করুন বাতিল
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৮ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন হাকাম ইবনে Nafie 
আমাদের সাফওয়ান ইবনে আমর ইবনে ওবায়েদ Shurayh বলেন 
সম্পর্কে গোড়ালি এখনও এই জাতির খলিফা বললেন মধ্যে 
সাধারণ এবং আমিরশাহী এর তালিকা করা হয় দেওয়া একটি জীবন্ত রাজস্ব এবং এমনকি যীশু ছেলে পাঠায় এর মেরি , শান্তি হতে তার উপর এবং 
ঐক্যবদ্ধ হতে এবং তারপর ছিন্ন আমিরাত
হাদিস - ২৩৯
হযরত আবু নোমান আবু উবাইদ এবং বশীর ইবনে সাঈদ রহঃ থেকে বর্ণিত, তারা উভয়জন বলেন, প্রথমতঃ নবুওয়ত ও রহমত হিসেবে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা চলতে থাকবে, অতঃপর সেটা খেলাফত এবং রহমত হিসেবে পরিবর্তন হবে। অতঃপর এমন কতক বাদশাহর আত্নপ্রকাশ হবে, যারা পরস্পরের বিরোধীতায় লিপ্ত হবে। তারা বিভিন্ন ধরনের জুলুস ও বিশৃঙ্খলায় জড়িয়ে পড়বে। এ সকল বাদশাহ শরাব পান ও রেশমী কাপড় পরিধান করাকে বৈধ মনে করার পাশাপাশি যিনাকেও হালাল জানবে। এরপরও তারা আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে রিযিক ও সাহায্য প্রাপ্ত হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ২৩৯ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
সাধারণ হাবিব থেকে বিন Hawshab সম্পর্কে আমাদের Hushaym বলুন 
ইবনে আবু ধ্রুবক 
আবু Obeida এবং বশির ইবনে বলেন যে আবু নুমান Tmakra তারা বলল করতে হবে একটি 
ভবিষ্যদ্বাণী, করুণা , এবং তারপর সফল ও রহমত তারপর রাজা Edaudha এবং বীজগাণিতিক দুর্নীতি জায়েজ করার জন্য চালা চিকেন এবং পানীয় 
এলকোহল এবং পরা রেশম তারা তবুও করা সাহায্য করেছে এবং এবং ভাল 
জ্ঞান এর রাজাদের খলিফার