এসো হাদিস পড়ি ?
এসো হাদিস পড়ি ?
হাদিস অনলাইন ?

একটি আরবি শব্দ ডাবল ক্লিক করে তার অভিধান এন্ট্রি দেখায়
হাদিস - ৫২০
হযরত আবুত্ তোফাইল রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি আলী রাযিঃ কে বলতে শুনেছেন, শাসন ক্ষমতা বনু উমাইয়ার হাতে বহাল থাকবে তাদের মধ্যে পরস্পর এখতেলাফ না হওয়া পর্যন্ত আর এখতেলাফ করলে ক্ষমতা আর বাকি থাকবেনা।
সংরক্ষণ করুন বাতিল
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২০ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
আলা ইবনে আবী আব্বাসের উপর সুফিয়ানকে বলুন, প্যারাসাইটের পিতা সর্বশক্তিমানের 
কথা শুনেছেন 
, আল্লাহ তা'আলাকে খুশি করতে বলেছেন যে, এটি এখনও নিরক্ষরতার ছেলেমেয়েরা রয়ে গেছে যদি না তারা তাদের সাথে মতানৈক্য করে
হাদিস - ৫২১
সাঈদ ইবনে সালেম আল-জায়শানী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি হযরত আলী রাযিঃ কে বলতে শুনেছেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা তাদের কাছে থাকবে যতক্ষণ পর্যন্ত তারা পরস্পর যুদ্ধ লিপ্ত না হবে এবং একে অপরের সাথে মতবিরোধ না করবে। যখন তারা এমন কার্যকলাপে জড়িয়ে যাবে তখন আল্লাহ তাআলা তাদের উপর কাফেরদের পক্ষ থেকে একটি দলকে চাপিয়ে দিবেন এবং তাদেরকে বিভিন্ন শহরে হত্যা করতে থাকবে আর বিভিন্ন ভাবে গণনা করা হবে। আল্লাহর কসম! তারা এখতেলাফে জড়িয়ে পড়লে এক বৎসরে দুইজন এবং দুই বৎসরে চারজন বাদশাহ পরিবর্তন হয়ে যাবে। অর্থাৎ, পরস্পরের সাথে একতেলাফে জড়িত হলে এক বৎসরে দুই জন শাসক ক্ষমতাসীন হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২১ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন পুত্র এর Harmalah বিন ইমরান সাঈদ বিন সালেম Aljeichana থেকে দান 
শুনলাম উচ্চ বলতে 
এটা থেকে তাদের এমনকি Guetalhm হত্যা তাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা , যদি যে ছিল ঈশ্বরের তাদের Oqoma পাঠানো 
ওরিয়েন্ট Afiktlohm Bdedda এবং Ahsoum সংখ্যা এবং ঈশ্বরের বছর হবে না , কিন্তু আমাদের রাজা দুই বছর এবং হবে না 
দুই বছর , কিন্তু আমাদের রাজা চার
হাদিস - ৫২২
হযরত উবাইদা রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি হযরত আলী রাযিঃ কে বলতে শুনেছেন, বনু উমাইয়ার হাতে রাষ্ট্র পরিচালনার গুরু দায়িত্ব থাকবে, যতক্ষণ না তারা পরস্পরের সাথে এখতেলাফে জড়িয়ে হয়ে পড়ে। আর যদি তারা এখতিলাফে জড়িত হয় তাহলে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা তাদের হাত থেকে চলে যাবে এবং কিয়ামত পর্যন্ত আর কখনো রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হতে পারবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২২ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের জন্য মুয়াম্মার আইয়ুব ইবনে সীরীন জন্য আব্দুর রাজ্জাক বলুন 
Obeida তিনি বলেন 
আমি উচ্চ শুনে আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে এই মানুষ এখনো গ্রহণ করা হয় এই Bthbj বলে 
এটা যদি না তাদের মধ্যে মতানৈক্য যদি তারা তাদের মধ্যে ভিন্ন বাইরে গিয়ে এর আর তাদের কাছে তাদের পর্যন্ত ডে এর 
কেয়ামতের মানে উমাইয়া
হাদিস - ৫২৩
হযরত হাসান ইবনে মুহাম্মদ ইবনে আলী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, কোনো জাতির মধ্যে চারটি আচরণের যে কোনো একটি প্রকাশ পাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত গুরুদায়িত্ব তাদের হাতে থাকবে। তার একটি হচ্ছে, আল্লাহ পাক তাদেরকে পরস্পরের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত করাবেন। দ্বিতীয়তঃ পূর্ব দিক থেকে কালো পতাকা বিশিষ্ট একদল সৈন্যের আত্মপ্রকাশ ঘটবে, যারা ক্ষমতাসীনদেরকে হত্যা করা বৈধ মনে করবে।  আরেকটি হচ্ছে, যে শহরে যুদ্ধ বিগ্রহ হারাম সেখানে নিরপরাধ লোকদেরকে হত্যা করা হবে। যার কারণে আল্লাহ তাআলা তাদেরকে সহযোগিতা করা ত্যাগ করবেন। চতুর্থতঃ যুদ্ধ বিগ্রহ হারাম করা হয়েছে এমন শহরে বিশাল এক বাহিনী পাঠানো হবে, এবং তারা সকলে একসাথে জমিনের ভিতর ধসে যাবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৩ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 5২3
আমাদের বলুন Mu'tamir বিন সুলাইমান আবু আমর আমাকে জানাল , বলল 
কায়েস বিন সাদ 
আল - হাসান বিন মোহাম্মদ বিন আলী বলেন মানুষের উপর এখনও Thbj তাদের আদেশ করতে এমনকি 
অবতরণ করার এক তাদের এর সময় চার ঢালাই এর ঈশ্বর , শেয়ার সহ বা ব্যানার কালো আসা দ্বারা 
উজ্জ্বল Vt_ham বা বধ মধ্যে বিশুদ্ধ স্ব দেশ হরাম, 
ঈশ্বর তাদের পরিত্যাগ করবেন না বা 
কোন লোকের জমিতে সৈন্য পাঠাবেন না এবং তিনি তাদের ধ্বংস করবেন
হাদিস - ৫২৪
হিন্দ্ বিন্তে মুহাল্লাব রহঃ থেকে বর্ণিত, হযরত ইকরামা রহঃ তাকে বলেছেন, তিনি হিন্দ বিনতে মুহাল্লাবের কাছে প্রায় সময় আসতেন এবং হাদীস বর্ণনা করে যেতেন। তিনি হযরত আব্দুল্লাহ ইব্নে আব্বাছ রাযিঃ থেকে বর্ণনা করেন, যতক্ষণ পর্যন্ত বনু উমাইয়ার লোকজন সামান্য বিষয় নিয়ে পরস্পর মতবিরোধে লিপ্ত না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা তাদের হাতেই থাকবে। তবে এদের মধ্যে সামান্য মতপার্থক্য দেখা দিলে কিয়ামত পর্যন্ত তাদের হাত থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়া হবে। পরবর্তীতে আর কখনো তারা ক্ষমতার মালিক হতে পারবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৪ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ - 5২4
আমাদের বলুন আব্দুর রাজ্জাক আল মুয়াম্মার 
বলেন আমাকে কিছু বলেন এর ভারত মেয়ে Muhallab থেকে আশপাশ 
যে Ikrima হুজুর ইবনে আব্বাস তাকে জানান এবং তিনি 
তাতে প্রবেশ একটি অনেক এবং সৃষ্ট তিনি বলেন ইবনে আব্বাস , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে এই এখনও শিশু মধ্যে এর 
নিরক্ষরতা যদি না বল্লম সহ হয় বিভিন্ন , বিভিন্ন যদি , আউট বল্লম সহ এর তাদের শেষবিচারের দিন
হাদিস - ৫২৫
কা’বের স্ত্রীর ছেলে তাবী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, বনু উমাইয়া দীর্ঘ একশত বৎসর পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় ছিলেন, মারওয়ানের সন্তানরা ক্ষমতায় ছিলেন ষাট বৎসর থেকে কিছু বেশি সময় । তারা নিজেরাই হাতছাড়া করা পর্যন্ত তাদের হাতেই ক্ষমতা বহাল ছিল। অনেকেই তাদেরকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করতে চাইলেও সেটা সম্ভব হয়নি। যখনই এক প্রান্ত থেকে আটকাতে চেয়েছে, তখনই আরেক প্রান্তে ধসে পড়বে। মীম দ্বারা তাদের বিজয় শুরু হবে এবং মীম দ্বারা সেটা শেষ হবে। তাদের কাছে রাজত্ব বাকি থাকবে, এক পর্যায়ে তাদের বংশে এক খলীফা বের হয়ে হত্যা করবে এবং তার বাহনকেও হত্যা করা হবে। তেমনিভাবে জামিরার ধূসর রংয়ের গাধাটিও হত্যা করা হয়। অতঃপর তাদের রাজত্ব খতম হয়ে যায় এবং মারওয়ানের হাতে বনুউমাইয়ার রাজত্ব এমনভাবে খতম হবে যেমন হাত-পায়ের নখকে পুরোপুরিভাবে কেটে ফেলা হয়।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৫ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের Oirtah বিন মুনযির জন্য আবদুল্লাহ ইবনে মারওয়ান বলুন আমাকে বলেছিল করার বিক্রি পুত্র এর একটি 
গোড়ালি , 
বলেন রাজা নিরক্ষরতা এর যে অদ্ভুত এবং ষাট থেকে বানি মারওয়ানের এক শত বছর - বছর - পুরাতন রাজা যেতে না 
এমনকি তাদের হাত তারা পরিতৃপ্ত চান তারা না পারেন যখনই Sdoh Anzaaoh উপর এক হাত Anhedm উপর এক হাত 
Bmam না উদ্বোধন এবং মুদ্রাঙ্কন Bmam রাজা হয়ে যেতে পর্যন্ত খলিফা বন্ধ লাগে এবং তাদের Hmlah নিহত 
এবং নিহত একটি গাধার দ্বীপ Alosb মারওয়ান তারপর তাদের রাজা ও তার হাত কেটে ধ্বংস এর পুস্পস্তবক অর্পণ
হাদিস - ৫২৬
প্রখ্যাত সাহাবী হযরত আব্দুল্লাহ ইব্নে মাসউদ রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, জনৈক যুবক খেলাফতের দায়িত্ব গ্রহণ করবে, যার কোনো ছেলে-সন্তান ছিলনা। দিমাশ্কে বিদ্রোহের মাধ্যমে তাকে হত্যা করা হলে, পরবর্তীতে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা নিয়ে মানুষের মাঝে দ্বন্দ দেখা দিবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৬ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আব্দুল আজিজ বিন সালেহ আলী ইবনে রাবাহ জন্য বিন সাদ বিন Lahee'ah Rushdin আমাদের বলুন 
ইবনে থেকে 
মাসুদ বলেন নিম্নলিখিত ব্যক্তিদের খলিফা তরুণ ছেলেদের আনুগত্য দিতে হবে না করতে তাকে এ দামেস্ক Bgdr বিভিন্ন মানুষের নিহত 
তার পরে
হাদিস - ৫২৭
হযরত এরবায ইবনে মারিয়া রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, শাম দেশে একজন খলীফাকে হত্যা করা হলে পরবর্তীতে নাহক্বভাবে হত্যাযজ্ঞ চলতে থাকে এবং আল্লাহ তাআলা পক্ষ থেকে নির্দেশ তথা কিয়ামত না হওয়া পর্যন্ত যে খলীফাই আসুক না কেন এভাবে নাজায়েয ও অবৈধ কাজ চলতেই থাকবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৭ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন বাকি এর পবিত্র এক ও আব্দুল বিষের বিন আব্দুল্লাহ বিন বাম যারা তাকে বলেন 
বলেন, যদি Arbad বিন খলিফা বল সম্পর্কে হত্যা এর Baham যেখানে রক্ত এখনও Msvuk এবং নিষিদ্ধ ছিল ইমামের 
সমাধান নেই পবিত্রতা পর্যন্ত অর্ডার এর আল্লাহ আসে
হাদিস - ৫২৮
সাকাসিক // গোত্রের জনৈক ব্যক্তি থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, যখন কুরাইশরা তাদের কোনো দায়িত্বশীলকে হত্যা করবে তখন আল্লাহ তাআলা তাদের উপর তাদের দুশমনকে চাপিয়ে দিবেন। এমন কি তাদের বয়স্ক কিংবা আমীর সকলকে হত্যা করা হবে। তখন জাযিরার বাসিন্দাদেরকে সমূলে উৎখাত করা হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৮ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
ইয়াহইয়া ইবনে সাঈদ আল - আত্তারের জন্য একটি মানুষ এর তাদের 
বললেন কাছে তাকে , থেকে তীর্থযাত্রীদের একটি অভিবাসী 
থেকে একটি Alskask এর লোকটি বলল রসূল এর আল্লাহ , সা 
যদি কুরাইশদের নিহত Hmeliha ঈশ্বর প্রলুব্ধ এর তাদের মধ্যে শত্রুতা তাই যেমন না করতে এবং একই আকার সঙ্গে থাকা প্রিন্স 
কেবল Chilm দ্বীপ হত্যা
হাদিস - ৫২৯
হযরত যির ইব্নে হুবাইশ রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি হযরত আলী রাযিঃ কে বলতে শুনেছেন, খবরদার! নিঃসন্দেহে আমার নিকট সবচেয়ে বড় ফেৎনা যেটা শঙ্কিত হওয়ার অন্যতম কারণ হচ্ছে, বনু উমাইয়ার ফেৎনা। নিঃসন্দেহে সে ফেৎনা অন্ধ এবং অন্ধকারাচ্ছন্ন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫২৯ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন হারুনের আবু আমর বিন কায়েস Almlaia 
Almnhal ইবনে ' আমর ইবনে ধর Hbeich 
উচ্চ আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তিনি শুনলেন, সেই থেকে বলে যে Okhov 
শত্রুতা 
আপনি উমাইয়াদের রাষ্ট্রদ্রোহ না 
এটা অন্ধকার অন্ধ রাষ্ট্রদ্রোহ
হাদিস - ৫৩০
আযহার ইবনুল ওলীদ রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি উম্মুদ্দারদাকে বলতে শুনেছি, তিনি বলেন, আমি আবুদ্দারদাকে বলতে শুনেছি, শাম এবং ইরাকের মধ্যবর্তী স্থানে যখন বনু উমাইয়ার জনৈক যুবক খলীফাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়, তখন থেকে খলীফার প্রতি আনুগত্য হালকা হতে থাকে এবং নাহক্বভাবে জমিনের বুকে রক্তপাত হতে থাকবে। যুবক খলীফা হচ্ছেন, ওলীদ ইবনে ইয়াযীদ।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩০ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের কাছ থেকে হুসেন ইবনুল ওয়ালীদ ইবনে মুসলিম বলুন - আল থেকে ওয়ালিদ - আজহার 
ইবনে আল ওয়ালিদ বলেন : আমি শুনেছি উম্মে আল দারদা বললেন 
আমি শুনেছি আবু দারদা আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে যদি তাঁকে বলতে শুনেছি 
খলিফা নিহত থেকে যুবক সিরিয়া মধ্যে উমাইয়া ও ইরাক অত্যাচারিত এখনো রক্ত তাচ্ছিল্য মাননা হয় 
উপর Msvuk মুখ এর পৃথিবীতে মানে এছাড়া আল ওয়ালিদ বিন বৃদ্ধি
হাদিস - ৫৩১
হযরত ইয়াযীদ ইবনে আবু হাবীব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, মানুষের উপর কোনো টেরা লোককে খলীফা নিযুক্ত করা হলে যদি তোমার শক্তি থাকে তাহলে মিশর ছেড়ে শাম দেশের দিকে চলে যাও। এটা অবশ্যই হিশাম খলীফা নিযুক্ত হওয়ার পূর্বের ঘটনা।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩১ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ - 531
আমাদের ছেলে Rushdin বলুন এর 
Hiệp 
ইয়াযীদ ইবনে আবী হাবীব বলেন এটা মানুষ খলিফা, কটাক্ষ আনুমানিক বলা হয়েছিল 
যে তিনি সিরিয়া মিশরের থেকে স্নাতক এবং বলেন , আগে তা করতে দয়া করে উত্তরাধিকার এর হিশাম
হাদিস - ৫৩২
সুফিয়ান আল-কালবী রহঃ বর্ণনা করেন, যখন ওলীদ ইবনে ইয়াযিদ নামক উমাইয়া বংশের কেউ খেলাফতের দায়িত্বগ্রহন করবে তখনই উমাইয়া খেলাফতের বিদায়ী ঘন্টা বেজে উঠবে। অতঃপর যখন ইবনে আব্দুল মালিক খলীফা হবেন কোনো ধরনের ঝামেলা ছাড়া মারা যায় তখন সুফিয়ান আল-কালবীকে বলা হলো, কৈ তোমার কথা তো ঠিক হয়নি। জবাবে তিনি বলেন, হ্যাঁ আমার কথা বাস্তবায়ন হওয়ার জন্য ওলীদ ইয়াযিদ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। সুতরাং অতিসত্ত্বর সে খেলাফতের দায়িত্বভার গ্রহন করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩২ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
সাঈদ ইয়াযীদ ইবনে আবী 
হাবীব আমাদের বলেছেন যদি নর্মান লোকটি বলল সুফিয়ান কালবী বলেন কাছে তাকে , মারওয়ান আল - ওয়ালিদ যখন 
বিঘ্নিত উত্তরাধিকার যখন উমাইয়া খলিফা ওয়ালিদ ইবনে আবদুল মালেক , এবং মারা যেখানে তিনি বলা হয়নি, আমি 
তাদেরকে বললেন Astkhalafn একটি লোকটি বলল করতে তাকে , ওয়ালিদ ইবনে ইয়াযীদ
হাদিস - ৫৩৩
হযরত খালেদ ইবনে আবু আমর থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, সুফিয়ান আল-কালবী রহঃ এরশাদ করেন, বনু উমাইয়ার রাজত্বের পতন হচ্ছে যখন তাদের বংশের অল্প বয়স্ক এক যুবক খলীফা হওয়ার তার আম্মাসহ তাকে হত্যা করা হবে মূলতঃ তখনই বনু উমাইয়ার শাসন ক্ষমতার বিদায়ী ঘন্টা বেজে উঠবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৩ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 533
নাঈম বলেন, 
ইবনে হায়া খালিদ বিন আবী ওমরান বলেন, যদি কোন 
ছেলেকে তাদের কাছ থেকে নিয়ে নেওয়া হয় এবং তারপর তার মা মারা যায় এবং তার মৃত্যু হয়, তাহলে সুফিয়ান কালবীর সুলতান বিন অশিক্ষিত হয়ে যান , তখন তাদের ক্ষমতা কাটা হয়
হাদিস - ৫৩৪
হযরত মুজাহিদ রহঃ তাবী রহঃ থেকে বর্ণনা করেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা বনু উমাইয়ার হাতে বহাল থাকবে। এক পর্যায়ে এক লোকের ঔরশ থেকে চারজন খেলাফতের দায়িত্ব গ্রহন করবে। চারজন হচ্ছে, সুলাইমান ইবনে আব্দুল মালিক, হিশাম, ইয়াযিদ এবং ওলীদ।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৪ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 534
আমাদের বলুন ছেলে 
Uyaynah সুলেইমান লাহুয়েল মুজাহিদ বিক্রি এই এখনও সম্পর্কে বলেন উমাইয়া এমনকি হয়েছে 
তাদের সবাইকে চার ইস্পাত মানুষ সুলায়মান ইবনে আবদুল মালেক ও হিশাম নবজাত বৃদ্ধি
হাদিস - ৫৩৫
ইব্নে ওয়াহাব রহঃ থেকে বর্ণিত, একদিন হযরত মুয়াবিয়া রাযিঃ আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাছ রাযিঃকে বললেন, তখন কি এক প্রয়োজনে মারওয়ান ইবনে হাকাম তার ঘরে এসে বের হয়ে গিয়েছেন। হযরত মুয়াবিয়া রাযিঃ তখন বলেন, আপনি কি জানেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, যখন হাকামের সন্তান সংখ্যা চারশত নিরান্নব্বই জন পূর্ণ হবে তখনই তাদের ধ্বংস হওয়া খেজুর চিবিয়ে খতম করার ন্যায় শুরু হয়ে যাবে। জবাবে ইব্নে আব্বাছ রাযিঃ বললেন, অবশ্যই জানি। এর মধ্যে কোনো সন্দেহ নেই।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৫ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন Rushdin ইবনে Hiệp আবু থেকে এগিয়ে এর বেন Mohb 
সিদ ইবনে আব্বাস বললেন এবং প্রবেশ 
তাকে মারওয়ান ইবনুল - প্রয়োজন হাকাম এর তাকে এবং তারপর চলে গেছে কিন্তু আপনি জানি যে রসূল এর আল্লাহ , সা , 
তিনি বলেন যদি শিশু নিরানব্বই চারশো রায় পৌঁছে তাদের ধ্বংস দ্রুত লক Altmrh চেয়ে ছিল 
ইবনে আব্বাস বলেন হ্যাঁ
হাদিস - ৫৩৬
হযরত কাসির ইব্নে মুররা আল-হাজরামী রহঃ থেকে বর্ণিত, বনু উমাইয়ার শাসন ক্ষমতা পতন হওয়ার পর পৃথিবী আমার এই দুই জুতার মধ্যবর্তী স্থানের ন্যায় বিদ্যমান থাকা পছন্দ করিনা। অর্থাৎ, তখন পৃথিবী অশ্লীলতায় ভরপুর হয়ে যাবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৬ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের কাছ থেকে Hraahil বিন আয়াজ জন্য Rushdin ইবনে Lahee'ah বলুন 
অনেকের জন্য আবু বাথা একবার বিন হাদরামী বলেন কি আমি কি করতে ভালোবাসি হয় বাম বিশ্বের পরে যেতে শিশুদের এর 
নিরক্ষরতা Benali এই
হাদিস - ৫৩৭
হযরত আবু উমাইয়া আল-কালবী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি ইয়াযিদ ইব্নে আব্দুল মালিক এর খেলাফতকালীন এমন একজন শেখ থেকে হাদীস বর্ণনা করেছেন যিনি জাহেলী যুগ প্রাপ্ত হয়েছিলেন। তিনি বলেন, হিশামের মৃত্যুর পর একজন যুবক খেলাফতের দায়িত্ব গ্রহন করতঃ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা পরিচালনা করবেন। যিনি প্রজাদেরকে এমনভাবে দান করবেন, যা ইতিপূর্বে কেউ করেনি। আহলে বাইতের একজন লোক (যার পরিচয় কোথাও উল্লেখ করা হয়নি) আত্মপ্রকাশ করে যে যুবক বাদশাহকে হত্যা করবে তার উভয় হাতে রক্ত প্রবাহিত করবে এবং আত্মীয়তার সম্পর্ক নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। তার হাত দ্বারা যাবতীয় সম্পদ বিনষ্ট হবে। এরপর জাযিরার দিক থেকে একলোক এসে তালোয়ারের সামনে জোরপূর্বক তার হাত থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিবে। এরপর কালো ঝান্ডা বিশিষ্ট বিশাল এক বাহিনী তোমাদের উপর রক্ত বন্যা বয়ে দিবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৭ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন আবু থেকে ওয়ালিদ বিন মুসলিম Almhdjaa উপাসকদের 
আবু থেকে 
নিরক্ষরতা কালবী তিনি তাদের বলেছিলাম উত্তরাধিকার এর বললেন ইয়াযীদ ইবনে আবদুল মালেক শেখ তাদের অজ্ঞতা উপলব্ধি 
Alakm পর মৃত্যুর এর হিশাম সেই ব্যক্তি যাকে তরুণদের উপহার, তাকে কেউ দ্বারা দেখা দেয় দুটো কারণে দেয় দিতে একটি লোক 
হয়নি তাকে হত্যা লুকানো তার পরিবার থেকে তাঁর হাত ও হাতের রক্ত ছিন্ন বন্ধন উপর Thrac এর আত্মীয়তা 
এবং গায়ে হাত Thrj টাকা এবং তারপর আসে করার দেনাদার এখানে উল্লেখ করা দ্বীপ লাগে সঙ্গে এটি তার তলোয়ার 
জোরপূর্বক এবং আসার পর তারপর থেকে আপনি কালো পতাকা আপনি Sila বিলোপ পাওনা
হাদিস - ৫৩৮
ইব্নে শিহাব যুহরী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, বনু উমাইয়া খলীফা মৃত্যুবরণ করার পর একজন যুবক খেলাফতের দায়িত্বভার গ্রহণ করার পর তাকেও হত্যা করা হবে। অতঃপর জাযিরার পক্ষ থেকে একজনের আগমন হবে, সুলাইমান ইবনে হিশাম তখন জাযিরার অবস্থান করছিলেন। এরপরই কালো ঝান্ডা বিশিষ্ট লোকের আগমন ঘটবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৮ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ - 538
আমাদের আবদুল্লাহ বলুন 
বিন মারওয়ানের সাঈদ বিন ইয়াযীদ Altnokhi 
সিফিলিস থেকে , বলেন হিশাম নিশ্চয়ই মারা যাবে এবং থেকে গোলাম তারপর মানুষ এর 
তার বাড়িতে এবং তারপর করা থেকে মৃত্যুর প্রায় থেকে আসে দ্বীপ এবং সুলায়মান ইবনে হিশাম যে নিহত দিন দ্বীপ 
নিহত পরে কালো পতাকা এবং
হাদিস - ৫৩৯
হযরত নাযাল ইব্নে সীরিন রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি হযরত আলী রাযিঃ কে বলতে শুনেছেন, বনু উমাইয়ার শাসকদের উপর কঠিন কঠিন মসিবত আসতে থাকবে। এক পর্যায়ে তাদের প্রতি পঙ্গপালের ন্যায় বিশাল বাহিনী আসতে থাকবে। যারা কাউকে আমীর হিসেবেও মানবেনা আবার কারো অধীনস্ততাও স্বীকার করবেনা। এমন পরিস্থিতি দেখাদিলে আল্লাহ তাআলা বনু উমাইয়ার হাত থেকে রাজত্ব নিয়ে যাবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৩৯ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
Dahhaak জন্য Hushaym Juwaibiri বেন থেকে টেকার সম্পর্কে আমাদের বলুন 
Sabrah 
উচ্চ শুনে আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে এখনও চাবুক এর পুত্র এর তীব্র নিরক্ষরতা যে পর্যন্ত না আল্লাহ বলছেন পাঠায় 
এমন ঘনঘটা পতনের প্রতিটি এবং Astomron রাজকুমার থেকে আসা যেমন নার্ভ হয় নির্দেশ না । তাহলে আমি যেতে 
ঈশ্বর , রাজা এর উমাইয়া
হাদিস - ৫৪০
হযরত কা’ব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি এরশাদ করেন, শাম দেশে ব্যাপক এক ফেৎনা প্রকাশ পাবে, যার মধ্যে অনেক রক্তপাত হবে, আত্মীয়তার সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে এবং ধনসম্পদ লুণ্ঠন করা হবে। এরপর পূর্বদিক থেকে বিশাল এক বাহিনী ধেয়ে আসবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৪০ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের আবদুল থেকে ওয়ালিদ বিন মুসলিম বলুন - জব্বার বিন রশিদ 
সংক্ষিপ্ত রাবিয়া জন্য আজাদী , সম্পর্কে 
বিক্রি 
থেকে গোড়ালি থেকে বলা যেতে Baham শত্রুতা মধ্যে যা রক্ত চালা 
এবং বন্ধন ছিন্ন এর আত্মীয়তা এবং যেখানে Thrj ফান্ড তারপর অনুসৃত দ্বারা ইস্ট
হাদিস - ৫৪১
হযরত কা’ব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, তিনি এরশাদ করেন, হিশামের মৃত্যুবরণ করার পর কয়েক বৎসরের জন্য একজন লোক খেলাফতের দায়িত্ব গ্রহণ করবে, পরবর্তীতে আরেকজন লোক খলীফা হবে, যার হাতে সবকিছু ধ্বংস হয়ে যাবে। অতঃপর তীমা নামক এলাকা থেকে আরেকজন লোক প্রকাশ পাবে, যার মৃত্যুর সময় ঘনিয়ে আসবে। ঐ লোক এবং তার সন্তানরা মিলে প্রায় পঞ্চশ বৎসর খেলাফতের দায়িত্ব পালন করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৪১ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
Rushdin সম্পর্কে আমাদের বলুন 
ছেলে Hiệp ইয়াযীদ ইবনে আবী হাবীব , 
থেকে গোড়ালি থেকে তাঁর মৃত্যুর পর বলেছেন হতে , একটি মানুষ অনুসরণ করে একটি গর্ভাবস্থা যেমন নারী 
ও তার ছেলে মায়ের দুধ ছাড়ানোর এবং আছে অন্য কিছু না হওয়া পর্যন্ত তারপর বিনষ্ট মানুষ গ্রহণ করে তাইমা উপস্থিত ছিলেন আসে জন্য তাকে করতে 
তাঁর পুত্র হতে পঞ্চাশ বছর
হাদিস - ৫৪২
হযরত তাবী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, বনু উমাইয়্যার সর্বশেষ খলীফার শাসন আমল থাকবে মাত্র দুই বৎসর, বা তার চেয়েও কম।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৪২ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ

আবু সালেহের কাছ থেকে ইয়াজীদ ইবনে কুত্থরের হায়দার ছেলে সম্পর্কে রুয়াডিনকে বলুন, বিকালের বিকেলে 
অশিক্ষিত ছেলেদের আরেক খলিফাকে দুই বছরের ক্ষমতা সম্পর্কে রিপোর্ট করবেন না
হাদিস - ৫৪৩
আমাদের মাশায়েখদের কতিপয় গ্রহণ যোগ্য ব্যক্তি বর্ণনা করেন, ইয়াশু এবং কা’ব রহঃ একদিন একত্রিত হয়। ইয়াশু ছিলেন, আলেম এবং কারী, যিনি রাসূলুল্লাহ সাঃ নবী হওয়ার পূর্বের কিতাবাদি সম্পর্কে অবগত ছিলেন। তারা উভয়জন একে অন্যকে জিজ্ঞাস করতে গিয়ে ইয়াশু রহঃ হযরত কা’ব রহঃকে জিজ্ঞাসা করলেন, আপনার কি জানা আছে, রাসূলুল্লাহ সাঃ এর বিদায়ের পর রাজা-বাদশাহদের কি অবস্থা হবে। জবাবে কা’ব রহঃ বলেন, আমি তাওরাতে পেয়েছি, প্রায় বার জন বাদশাহ হবেন, তাদের প্রথমজন হবেন সিদ্দীক, এরপর ফারুক, আল-আমীন, রা’সুল মুলুক, সাহেবুল আহরাছ, জাব্বার,সাহেবুল আ’সাব। তিনিই হবেন সর্বশেষ খীলফা এরপর হবেন সাহেবুল আলামাত। তিনিও মারা যাবেন। তবে যাবতীয় ফেৎনা প্রকাশ পাবে যখনই ইবনু মাহেক আয্ যাহীরিয়্যাতকে হত্যা করা হবে। মূলতঃ তখন থেকে তাদের উপর বিভিন্ন ধরনের বালা মসীবত আসতে থাকবে এবং ন¤্রতা ও সহনশীলতা উঠিয়ে নেয়া হবে। এরপর সাহেবুল আলামতের পরিবার থেকে চারজন বাদশাহ হবে। তার মধ্যে দুইজন বাদশাহ হচ্ছেন তাদের জন্য কোনো কিতাব পাঠ করা হবেনা। আরেকজন বাদশাহ যিনি নিজের বিছানায় মৃত্যুবরণ করবে। তবে তার রাজত্বকাল হবে সামান্য সময়ের জন্য। আরেকজন বাদশাহ, যিনি জওফের দিক থেকে আগমন করবে,তার হাতেই বিভিন্ন বালা-মসীবত সংঘটিত হবে। এবং মাধ্যমে সবকিছু সমূলে ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়ে যাবে। তিনি হিম্স এলাকায় একশত বিশদিন পর্যন্ত অবস্থান করবে, ঐসময় তার এলাকার পক্ষ থেকে আতংক ছড়িয়ে পড়বে। যার কারণে সকলে সেখান থেকে পলায়ন করবে এবং জওফ নামক এলাকায় বালা-মসীবত দেখা দিবে। আবার তারাও পরস্পরের সাথে বালা-মসীবতে লিপ্ত হয়ে যাবে। অতঃপর তাদের রাজত্ব খতম হয়ে যাবে এবং অন্য গোত্রের লোকজন তাদের উপর বিজয়ী হয়ে শাসনক্ষমতা চালাতে থাকবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৪৩ ]
___________________________________
নাঈম বিন হাম্মাদ
আমাদের বলুন আবু মুগীরা ইবনে আইয়াশ 
আমাদের sheikhs এর গোপন বলেছিলেন যে জশুয়া 
এবং হিল তারা পূরণ , যিহোশূয় ছিল একটি মানুষ একটি সামনে বই বিজ্ঞানী পাঠক উৎস এর নবী , শান্তি তার উপর 
Vtsaela জিজ্ঞাসা জশুয়া হিল , বলেন অ্যালেক সচেতন এর কি পরে Almulk এই নবী বললেন গোড়ালি আমি খুঁজে 
মধ্যে প্রথম বাইবেল বারো রাজা এর তাদের একটি বন্ধু এবং তারপর ফারুক তারপর সম্পাদক ও মাথা এর কিং এবং মালিক এর 
Ahras তারপর জব্বার তারপর মালিক এর নার্ভ, তেম নিশ্চয়ই মারা যাবে , তারপর মালিক এর চিহ্ন ডাই হয়েছে 
নিশ্চয় পারেন 
রাষ্ট্রদ্রোহ 
হলে তারা হতে আমি 
'Alzhibat হত্যা ধ্বংসাত্মক আছি যখন এটি হাইলাইট চাবুক এবং বাড়াতে 
সমৃদ্ধি এবং যখন এটি হবে হতে 
চার রাজাদের মানুষ এর ঘর মালিক এর চিহ্ন Malakan তাদের পড়া না 
বই 
এবং রাজা ডাইস আল তাঁর বিছানা Mkth সামান্য রাজার সামনে আসে 
তার হাতে জাউফ এবং হতে একটি হাত উপর চাবুক থেকে পুস্পস্তবক অর্পণ হোমস উপর বাসভবন বিরতি এবং এক শত বিশ সকাল
ভয় তার দেশ থেকে আসে, এবং তিনি তাদের থেকে দূরে সরানো হয়, এবং ছিটমুর এর আঘাতে পড়ে, এবং তাদের মধ্যে মধ্যে আক্রমন 
আসে , এবং তারপর তাদের ব্যাপার বিঘ্নিত হয়, এবং তারা অন্যদের বাড়ী থেকে আসা,
হাদিস - ৫৪৪
আবু আমর আত্তাঈ রহঃ বলেন, মরওয়ান যখন হিম্স নগরীকে অবরুদ্ধ করে রাখে তখন আমি সেখানে ছিলাম। উক্ত অবরোধ প্রায় চারমাস কিংবা সে পরিমান সময় পর্যন্ত স্থায়ী ছিল। যার কারণে ক্ষুধা-তৃষ্ণা তাদের জীবনকে দুর্বিসহ করে তোলে। সেখানে অবস্থানকারীদের জীবন সংকীর্ণ হয়ে উঠে। ফলে তারা সন্ধি করার প্রস্তাব দিয়ে পাঠায়। এদিকে মরওয়ান শহরের বাহিরে বিশাল গর্ত খনন করার নির্দেশ দেয়। যখন সিমান্তের নিচে গর্ত করা হয় হুবহু শহরের ভিতরেও সেরকম গর্ত খনন করতে হিম্স এলাকার আরেকদলকে নির্দেশ দেয়া হয়। এক পর্যায়ে তারা গলিমুখে স্বাক্ষাৎ করে। এদিকে হিম্সবাসীদের একটি অংশ ছিল শহরের ভিতরে। যার কারণে মরওয়ানের লোকজন গর্ত করা আরম্ভ করলে শহরে অবস্থানকারীদেরকেও তার বরাবর গর্ত করতে নির্দেশ দেয়া হয়। এভাবে উভয়দল গর্ত খনন করতে থাকে। এক পর্যায়ে উভয় দলের স্বাক্ষাৎ হয়ে যায়। কখনো কখনো গর্তের উপরের ্অংশ ধসে পড়ে মারা যাওয়ার ঘটনাও ঘটে যায়। সেখানেই মরওয়ান তার বাহিনীকে কোথাও গর্ত করার নির্দেশ দিতেন হুবহু তার বরাবর হিমসের বাসিন্দারা গর্ত খনন করে নিত। অতঃপর শহরের মধ্যে অবস্থানকারী মরওয়ানের লোকজন মরওয়ানকে বলল, যখনই আমরা গর্ত করি সাথেসাথে তারাও গর্ত করা আরম্ভ করতে শুরু করে দেয়। ফলে তাদের এবং আমাদের মাঝে মোকাবেলা হয়। ফলে মরওয়ান তার বংশের লোককে ডেকে পাঠায় এবং তাকে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করে। তবে নিবতী লোকটি তার কাছে যেতে অস্বীকার করে। যখন মরওয়ান তার বংশের লোকের সাথে চুক্তি করতে নিরাশ হয়ে যায় তখন বললেন, তাদের দিকে পানি প্রবাহিত হওয়ার যত পথ রয়েছে সবগুলো বন্ধ করে দাও। যখন হিমসবাসীরা মরওয়ানের সিদ্ধান্ত জানতে পারে তখন মরওয়ানের সৈন্যদের বিপরীত সিমান্তবর্তী এলাকায় একজন কালো লোককে নিযুক্ত করে। কিছুক্ষণপর তাদেরকে ডাক দিয়ে বলে, মরওয়ান! যদি তুমি পিপার্ষাত হও তাহলে আমরা তোমাকে পানি পান করাব। আর যদি ক্ষুদার্থ হও তাহলে তোমার খাবারের ব্যবস্থা করব,আর যদি তুমি চাও যে, আমরা তোমার সাথে এ আচরন করি তাহলে অবশ্যই আমরা সে আচরণই করব। তোমার সৈন্যদলকে তুমি কন্ট্রোল কর। তোমার প্রতি প্রবাহিত হওয়া পানি তোমাকে আর ডুবিয়ে মারবেনা। অতঃপর শহরে এলান করে দেয়া হলো, শহরে অবস্থিত হারিছ নামক নদীটি যেন চালু করে দেয়া হয়, যেন শহরের বাহিরেও পানির প্রবাহ বাকি থাকে, তবে পানির ¯্রােত দেখে শহর বাসীরা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে যায়। আবার তার উপর বিভিন্ন কূপ থেকেও পানি ঢালা হয়, যেন সে পানি প্রবল ¯্রােতের সাথে মরওয়ানের সৈন্যবাহিনীর উপর আছড়ে পড়ে। যেই ভাবা সেই কাজ। ¯্রােতের সাথে উক্ত পানি মরওয়ানের সৈন্যবাহিনীর গায়ে গিয়ে পড়ে, তখন তারা ভীতসন্ত্রস্তÍ হয়ে ছুটতে থাকে। হঠাৎ মরওয়ান বলে উঠল, এটা আবার কি? জবাবে সৈন্যরা বলল, হিম্স নগরীর দিক থেকে তারা আপনার বিরুদ্ধে প্রবল ¯্রােতের সাথে পানি প্রবাহিত করেছে। অতঃপর মরওয়ান বলল, আমি তো ধারনা করেছিলাম হয়তো তারা অবরুদ্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্ষুধার্ত হয়ে পড়েছে, অথচ তাদের কাছে এত বেশি পানি মজুদ রয়েছে যদ্বারা আমার সৈন্যবাহিনীকে ডুবিয়ে দিতে সক্ষম। এরপর মরওয়ান তার সৈন্যকে অবরোধ তুলে নির্দেশ দিলে তারা অবরোধ উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৫৪৪ ]
___________________________________
নঈম বিন হাম্মাদ
আমাকে বলুন আবু আমের আল - তাই 
বলল আমি ছিলাম হোমস মারওয়ান হোমস চার মাস বা তাই, এমনকি ঘেরাও করলেন তাদের ক্ষুধার্ত ও তৃষ্ণার্ত পাওয়া 
এবং তাদের কাছ থেকে খাওয়ানো যতক্ষণ না তারা Massalanh বলেন চেয়েছিলেন , মারওয়ান কিছু লোক বাইরে খনন আদেশ ছিল এর শহর 
যদি তারা গ্রহণ তার প্রাচীর অধীনে গর্তে মধ্যে থেকে Bhmahm খনন শহর এবং অন্যান্য লোক মানুষ এর হোমস 
এমনকি ঝাঁকে ঝাঁকে দেখা করতে ছিল মানুষ এর মধ্যে হোমস Nabataean যদি গৃহীত মারওয়ান মালিকদের শহর তুরপুন 
শহর ক্রম খনন Bhmahm সেখানে হয় এখনো দেখা করতে scrabbling এবং সম্ভবত হিংস্র উপর তাদের 
Hfirthm Vemuton সব মারওয়ান আদেশ করা হয় নি থেকে তাদের কাছ থেকে খনন একটি অবস্থানে ভিতরে শুধুমাত্র খনন 
শহর Bhmahm বলা হয় দ্বারা মারওয়ান নগরীর নাবাটি এটি খনন করে না বাইরে থেকে গর্ত , কিন্তু তাদের আদেশ 
Vhfroa Bhmana যতক্ষণ না আমরা পূরণ যেখানে তারা বলেছিল বেদ মারওয়ান তার মধ্যে ভোজন Nabatean রাজধানী 
তাকে দিতে একটি যাত্রায় করতে তাকে এবং সে Nabataean প্রত্যাখ্যান বাইরে আসতে করতে তাকে যখন তিনি নিরাশ এর Nabataean বলেন সম্পর্কে সমস্ত জল কেটে তাদের
আপ করতে তাদের তিনি যখন জানতে পারলেন মুখগুলির মুখ মানুষ এর হোমস , তাই তারা সেট আপ একটি Soarham কালো মানুষের 
নগ্ন জুতা শিবির করা হয় Venadahm বললেন, মারওয়ান আপনি যদি হয় তৃষ্ণার্ত Osaganak আপনি ক্ষুধার্ত হন, তাহলে 
Otamnak যদি আপনি কি করতে চান আপনার তাই এবং তাই আমরা তোমাকে রক্ষা হয়নি Askark মজান না পাঠায় তা 
আপনি 
পানি তারপর তারা ডেকে শহর Aharis নদী তাদের আউট পাঠাতে এর 
শহর ভয় পাই Vsaboa শহরের যেখানে থেকে পানি কূপ বেরিয়ে আসেন এর আস্কার মারওয়ান তে এটি 
পানি কলসী , যখন তিনি গৃহীত Baskar মারওয়ান তাকে ত্রস্ত , তারা মারওয়ান কি বলেন পানি তারা আপনাকে পাঠানো 
থেকে শহর এর হোমস বললেন , আমি সে আগত ছিল তৃষ্ণা থেকে তাদের এবং তারা কৌতূহল আছে এর পানি ভয় পায় 
তাকে খাবার Askarna - এস তারা চলতে শুরু করত যাত্রা সম্পর্কে তাদের 
মধ্যে প্রস্থান বানি আব্বাস