এসো হাদিস পড়ি ?

এসো হাদিস পড়ি ?

হাদিস অনলাইন ?

ইমাম মালিক (রহ.) : মালিকি ফিক্বহের প্রধান

মালিকি মাযহাবের প্রতিষ্ঠিতা বিশেষজ্ঞ মালিক ইবনে আনাস ইবনে আমির । ৯৩ হিজরিতে মদীনায় জন্মগ্রহণ করেন । তাঁর দাদা 'আমির ছিলেন মদীনার প্রধান সাহাবীদের অন্যতম । হাদীসের তৎকালীন সর্বশ্রেষ্ঠ বিশেষজ্ঞ ইমাম আয-যুহরী ও বিখ্যাত হাদীস বর্ণনাকারী আব্দুল্লাহ ইবনে উমারের আযাদকৃত গোলাম নাফি'র তত্ত্বাবধানে ইমাম মালিক হাদীস অধ্যয়ন করেন । কেবল হাজ্জের উদ্দেশ্য ব্যতীত তিনি কখনো মদীনার বাইরে ভ্রমণ করতেন না । ফলে, তাঁর জ্ঞান অনেকাংশে মদীনায় প্রাপ্ত হাদীসের মধ্যেই সীমাবদ্ধ হয়ে পড়ে ।

আব্বাসি শাসকদের সরকারি আইনে বলা হয়েছিলো, কোন ব্যক্তি খলীফার আনুগত্যের শপথ ভঙ্গ করলে অবধারিতভাবে তার স্ত্রী তালাঁক হয়ে যাবে । ইমাম মালিক সরকারি এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করার কারণে ১৪৭ হিজরীতে মাদীনার শাসকের নির্দেশে তাঁকে মারাত্মকভাবে নির্যাতন করা হয় । ইমাম মালিককে বেঁধে এমনভাবে প্রহার করা হয়েছিল যে, তাঁর হাত মারাত্মকভাবে আহত হয়েছিলো । কিছু কিছু বর্ণনায় আছে যে, ঐ আঘাতের ফলে তিনি সালাতে তাঁর হাত বুকের উপর রাখতে অক্ষম হয়ে পড়েন এবং হাত ছেড়ে দিয়েই সালাত আদায় করেন ।

ইমাম মালিক মদীনাতে চল্লিশ বছরেরও বেশি সময় ধরে হাদীসের পাঠ দান করেন । তিন আল মুয়াত্তা' নামে নাবী (সা:) এর হাদীস এবং সাহাবী ও তাবি'উনদের আসার সম্বলিত একটি গ্রন্থ সংকলন করেছিলেন ।

আব্বাসি খলীফা আবু জা'ফর আল মনসূর (শাসনকাল ১৩৬-১৫৮ হিজরি) নাবী (সা:) এর সুন্নাহভিত্তীক একটি সার্বজনীন সংবিধান চেয়েছিলেন । তাঁর অনুরোধেই ইমাম মালিক হাদীস সংকলনের এই কাজ শুরু করেন । তবে, গ্রন্থের সংকলন সমাপ্ত হওয়ার পর ইমাম মালিক গ্রন্থটি সকালের উপর বাধ্যতামূলক করে দেওয়ার প্রস্তাব নাকচ করে দেন ।

১৭৯ হিজরিতে ইমাম মালিক তার জন্মস্থান মাদীনায় ইন্তেকাল করেন
 
...............................................................................................................। 

ইমাম মালিক (রহঃ) এর সংক্ষিপ্ত জীবনী

নাম, উপনাম ও বংশ :

নাম মালিক, , ‘’ [1]

জন্ম ও প্রতিপালন :

ইমাম মালিক (রহ.) পবিত্র মদীনা নগরীতে এক সম্ভ্রান্ত শিক্ষানুরাগী মুসলিম পরিবারে জন্মলাভ করেন। জন্মের সন নিয়ে কিছু মতামত থাকায় ইমাম যাহাবী (রহ.) বলেন : বিশুদ্ধ মতে ইমাম মালিক (রহ.)-এর জন্ম সন হল ৯৩ হিজরী, [2]

তিনি পিতা আনাস বিন মালিকের কাছে মদীনায় প্রতিপালিত হন। তাঁর পিতা তাবে-তাবেঈ ও হাদীস বর্ণনাকারী ছিলেন, [3] তাঁর দাদা আবূ আনাস মালিক (রহ.) প্রসিদ্ধ তাবেঈ ছিলেন, , [4] তাঁর পিতামহ আমির বিন আমর (রা) প্রসিদ্ধ সাহাবী ছিলেন।[5] এ সম্ভ্রান্ত দ্বীনী পরিবেশে জ্ঞানপিপাসা নিয়েই তিনি প্রতিপালিত হন।

শিক্ষা জীবন :

রাসূল (ছাঃ)-এর হিজরতের পর হতে আজও পর্যন্ত দ্বীনী জ্ঞান চর্চার প্রাণকেন্দ্র হলো মদীনা। সে মদীনাতে জন্মলাভ করার অর্থ হল দ্বীনী জ্ঞান চর্চার প্রাণকেন্দ্রেই জন্ম লাভ করা। বিশেষ করে বংশীয়ভাবে তাঁদের পরিবার ছিল দ্বীনী জ্ঞানচর্চায় অগ্রগামী। এজন্য তিনি শৈশবকাল হতেই শিক্ষা শুরু করেন। বিশেষ করে তাঁর মাতা তাকে শিক্ষার প্রেরণা যোগান। ইমাম মালিক (রহ.) বলেন : আমি একদিন মাকে বললাম, ‘‘, , ,

তিনি বলেন : মা আমাকে ভালভাবে কাপড় পড়িয়ে দিয়ে বলতেন : যাও মদীনার প্রসিদ্ধ আলিম রাবিয়াহর কাছে এবং তাঁর জ্ঞান শিক্ষার আগে তাঁর আদব আখ্লাক শিক্ষা কর।[6] এভাবে তিনি মদীনার প্রসিদ্ধ মুহাদ্দিস,

ইমাম মালিকের (রহ.) শিক্ষক বৃন্দ : ইমাম মালিক (রহ.) অসংখ্য বিদ্যানের নিকট শিক্ষালাভ করেন। ইমাম যুরকানী (রহ.) বলেন : ‘‘, , ‘‘’’ [7] তন্মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজন নিম্নরূপ :

১. ইমাম রাবীয়া বিন আবূ আবদুর রহমান (রহ.)।

২. ইমাম মুহাম্মদ বিন মুসলিম আয্যুহুরী (রহ.)।

৩. ইমাম নাফি মাওলা ইবনু ওমার (রহ.)।

৪. ইব্রাহীম বিন উক্বাহ (রহ.)।

৫. ইসমাঈল বিন মুহাম্মদ বিন সা’

৬. হুমাইদ বিন কায়স আল ‘

৭. আইয়ূব বিন আবী তামীমাহ আসসাখতিয়ানী (রহ.) ইত্যাদি।[8]

ইমাম মালিক (রহ.)-এর ছাত্র বৃন্দ : ইমাম মালিক (রহ.) হলেন ইমামু দারিল হিজরাহ, [9] ইমামের প্রসিদ্ধ কয়েকজন ছাত্রের নাম নিম্নে প্রদত্ত্ব হল :

১. ইমাম মুহাম্মদ বিন ইদ্রীস আশ্শাফেঈ (রহ.)।

২. ইমাম সুফাইয়ান বিন উয়ায়নাহ (রহ.)।

৩. ইমাম আব্দুল্লাহ বিন মুবারক (রহ.)।

৪. ইমাম আবু দাউদ আত্তায়ালিসী (রহ.)।

৫. হাম্মাদ বিন যায়দ (রহ.)।

৬. ইসমাঈল বিন জাফর (রহ.)।

৭. ইবনু আবী আযযিনাদ (রহ.) ইত্যাদি।[10]

জ্ঞান গবেষণায় ইমাম মালিক (রহ.) :

ইমাম মালিক (রহ.) জন্মগতভাবেই অসাধারণ প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। মেধা শক্তি ছিল খুবই প্রখর। আবূ কুদামাহ বলেন : ‘‘[11]

হুসাইন বিন উরওয়াহ হতে বর্ণিত : তিনি বলেন : ‘‘, , , , , ? , ? , ,

অতএব ইমাম মালিক (রহ.)-এর অসাধারণ পান্ডিত্বের সাথে গভীরভাবে জ্ঞান গবেষণা ও সংরক্ষণ সম্পর্কে আর বেশী কিছু বলার অপেক্ষা রাখে না।

হাদীস শাস্ত্রে ইমাম মালিক (রহ.) : হাদীস শাস্ত্রে ইমাম মালিক (রহ.) এক উজ্জ্বল নক্ষত্র, , , , , ‘‘’’[12]

তিনি হাদীস শিক্ষায় পারিবারিকভাবে উৎসাহী হলেও তাঁর অসাধ্য সাধন এবং অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে অনেক অগ্রসর হয়েছেন। শয়নে স্বপনে সব সময় একই চিন্তা, , , , , , , , , ©র্ভতরে গেলাম। আমাকে জিজ্ঞাসা করলেন, ? , , ? , , , ? , [13]

ইমাম মালিক (রহ.) বেশীভাগ সময় একাকী থাকা পছন্দ করতেন, , , [14]

হাদীস সংগ্রহে কঠোর সতর্কতা:

ইমাম মালিক (রহ.) হাদীস শিক্ষা ও সংগ্রহে সদা ব্যস্ত হলেও যেখানেই বা যার কাছেই হাদীস পেলে তিনি তা গ্রহণ করতেন না, ‘‘’, ’’ ‘‘’’[15] ইমাম মালিক বিদ’[16] এ সতর্কতা শুধু তিনি নিজেই অবলম্বন করেন নি,

‘‘, , , ’’[17]

সুতরাং ইমামু দারিল হিজরা বা মাদীনার ইমাম মালিক (রহ.) রাসূল (ছাঃ)-এর হাদীস শিক্ষা ও সংগ্রহে যেমন জীবন উৎসর্গ করেছেন,

হাদীস পালনে ইমাম মালিক (রহ.):

হাদীস শুধু কিতাবের পাতায় নয়, ‘‘’’[18]

হাদীস শিক্ষাদান ও ফতোয়া প্রদান:

ইমাম মালিক (রহ.) শুধু হাদীস শিক্ষা ও আমল করেই ক্ষান্ত হননি, [19] ইমাম মালিক (রহ.) বলেন : ইচ্ছা করলেই শুধু হাদীস শিক্ষা ও ফতোয়া প্রদানের জন্য মসজিদে বসা যায় না, , [20] মুস্‘‘‘, ’’[21] সারা মুসলিম বিশ্ব হতে শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র মদীনায় জ্ঞান পিপাসুরা শিক্ষার জন্য পাড়ি জমান এবং ইমাম মালিকের মত মুহাদ্দিসের নিকট হতে হাদীস শিক্ষালাভ করে ধন্য হতেন।

ইমাম মালিক (রহ.) ফতোয়া প্রদানেও যথেষ্ট গুরুত্ব প্রদান করতেন। জটিল বিষয়গুলো দীর্ঘ গবেষণার পর ফতোয়া প্রদান করতেন। ইবনু আব্দুল হাকীম বলেন : ‘‘’’ , ‘‘‘, ’’[22] ইমাম মালিক (রহ.) কোন বিষয় উত্তর না দেয়া ভাল মনে করলে ‘‘’’ [23] কারণ তিনি মনে করতেন প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়া মানে জান্নাত ও জাহান্নামের সম্মুখীন হওয়া। প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে যেন আখিরাতে জবাব দিহিতার সম্মুখীন হতে না হয়।[24]

সঠিক আক্বীদাহ বিশ্বাসে ইমাম মালিক (রহ.) : আহলুস্ সুন্নাহ ওয়াল জামাআতের আক্বীদাহ-বিশ্বাসের অন্যতম ইমাম হলেন ইমাম মালিক (রহ.)। বিশেষ করে আল্লাহ তা’, [25] কুরআনুল কারীম ও সহীহ হাদীসের আলোকে ইমাম মালিক (রহ.) ঈমান আক্বীদাহর সকল বিষয়ে হকপন্থীদের সাথে একমত ছিলেন।[26]

ইমাম মালিক (রহ.) সম্পর্কে আলিম সমাজের প্রশংসা :

১. ইমাম শাফেঈ (রহ.) বলেন : ‘‘, , , ’’[27]

২. ইমাম আহমাদ বিন হাম্বল (রহ.) বলেন : ‘‘, , ?’’[28]

৩. ইমাম নাসাঈ (রহ.) বলেন : ‘‘’’[29]

ইমাম মালিকের (রহ.) গ্রন্থাবলী:

ইমাম মালিক (রহ.)-এর বেশ কিছু রচনাবলী রয়েছে। তন্মধ্যে উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ হল :

১. আল মুয়াত্ত্বা।[30] হাদীসের জগতে কিছু ছোট ছোট সংকলন শুরু হলেও ইমাম মালিকের ‘’ , , ‘’ ‘‘‘‘’’[31] হ্যাঁ,

২. ‘‘’’,[32]

৩. ‘‘’’[33]

৪. ‘‘’’[34]

৫. ‘‘’’[35]

৬. ‘‘’’[36] ইত্যাদি সহীহ সনদে প্রমাণিত যে, [37]

ইমাম মালিক (রহ.)-এর মৃত্যুবরণ : ইমাম মালিক (রহ.) ১৭৯ হিঃ রবিউল আউয়াল মাসে ৮৬ বছর বয়সে মদীনা মুনাওয়ারায় মৃত্যুবরণ করেন। এবং তাকে মদীনার কবরস্থান ‘‘’’[38] আল্লাহ তাঁকে রহম করুন এবং জান্নাতুল ফিরদাউসে স্থান দান করুন। আমীন!


[1] তারতীবুল মাদারিক, , , , , , , , , , ,

[2] তারতীবুল মাদারিক, , ,

[3] মান্হাজু ইমাম মালিক,

[4] তারতীবুল মাদারিক,

[5] আল ইসাবাহ ৭/২৯৮ পৃঃ।

[6] তারতীবুল মাদারিক,

[7] সিয়ারা আলামুন্নুবালা,

[8] সিয়ারু আলামুন্নুবালা,

[9] তারতীবুল মাদারিক, ,

[10] সিয়ারু আলামুন্নুবালা,

[11] আত্-তামহীদ,

[12] আত্তামহীদ, , , , ,

[13] তারতীবুল মাদারিক,

[14] তারতীবুল মাদারিক,

[15] আল ইরশাদ লিল খালিলী,

[16] আল মুহাদ্দিস আল ফাসিল, (, , ,

[17] আল মুহাদ্দিস আল ফাসিল, (, , ,

[18] ইত্হাফুস সালিক দ্রঃ মানহাজু ইমাম মালিক,

[19] সিয়ারু আলামিন্নুবালা,

[20] আল-হুলিইয়্যাহ,

[21] তার তীবুল মাদারিক,

[22] আল ইনতিকা,

[23] তায্ইনুল মামালিক,

[24] আল ইনতিকা,

[25] শারহুল আক্বীদাহ আত তাহাবীয়াহ,

[26] বিস্তারিত দ্রঃ মানহাজুল ইমাম ফি ইছবাতিল আক্বীদাহ- ডঃ সউদ বিন আব্দুল আযীয আদ দা‘

[27] আল ইনতিকা, ,

[28] তারতীবুল মাদারিক,

[29] আল্ ইনতিকা,

[30] তানাবীরুল হাওয়ালিক,

[31] তারতীবুল মাদারিক, , ,

[32] তায্ইনুল মামালিক, , ,

[33] তারতীবুল মাদারিক, , ,

[34] তারতীবুল মাদারিক, , ,

[35] তারতীবুল মাদারিক, , ,

[36] তাযইনুল মামালিক, , ,

[37] মানহাজু ইমাম মালিক ফি ইছবাতিল আকীদাহ,

[38] আত্তামহীদ, , , , ,


Desktop Site