এসো হাদিস পড়ি ?

এসো হাদিস পড়ি ?

হাদিস অনলাইন ?


উমাইয়া বংশের সর্বশেষ বাদশাহ প্রসঙ্গে

একটি আরবি শব্দ ডাবল ক্লিক করে তার অভিধান এন্ট্রি দেখায়
হাদিস - ৩১০
হযরত বাসেদ ইবনে সাদ রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, মারওয়ান ইবনে হাকাম ভুমিষ্ট হলে তার জন্য দোয়া করতে তাকে রাসূলুল্লাহ সাঃ এর কাছে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু রাসূলুল্লাহ সাঃ তার জন্য দোয়া করতে অস্বীকার করেন। বর্ননাকারী ইবনুয যুরাকা রহঃ বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ আরো বলেছেন, আমার সর্ব সাধারন উম্মত মারওয়ান এবং তার সন্তানদের হাতে ধ্বংস হয়ে যাবে।

[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১০ ]

___________________________________

নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের আবু বকর ইবনে আবী থেকে হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মারওয়ান Marwani বলুন 
যে রশিদ বিন সাদ থেকে মরিয়ম 
মারওয়ান ইবনুল - হাকাম ছিল জন্মগ্রহণ অর্থপ্রদান রসূল এর আল্লাহ , শান্তি 
তাঁর উপর করা তার কল কিন্তু তিনি করতে অস্বীকৃতি এবং তারপর নীল ছেলে বলল হ্রাস এর হাত আমার সাধারণ ও হাত এর 
তার বংশধরদের




হাদিস - ৩১১
হযরত ওবায়দুল্লাহ ইবনে ওবাইদ আল কুলায়ী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমাদেরকে কতক মাশায়েখ হাদীস বর্ননা করেছেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ দৃষ্টিপাত করেন তখন সহসা বলে উঠলেন, তার উপর এবং তার সন্তানদের উপর আল্লাহর লানত বর্ষিত হোক। তবে যারা ঈমান এনেছে এবং ভালো কাজ করেছে। কিন্তু খুবই সামান্য হবে।

[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১১ ]

___________________________________

নঈম বিন হাম্মাদ - 311

আমাদের বলুন আবু marauding ইবনে আইয়াশ ওবায়দুল্লাহ বিন ওবায়েদ Alclaay 
আমাদের বলেছেন কিছু Oxiakhana বলেন যে রাসূল এর আল্লাহ , সা যখন তিনি করেছিলেন লাগছিল করতে তাকে ডাকতে , 
তিনি আল্লাহ অভিসম্পাত , আর যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে এবং তারা কি কয়েক ব্যতীত এই ক্রুশবিদ্ধকরণ মধ্যে




হাদিস - ৩১২
হযরত জাহহাক রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমাকে নাযাল ইবনে সাবুরা রহঃ বলেন, আমি কি তোমাকে এমন একটি হাদীস বর্ননা করবোনা যেটা আমি আবুল হাসান আলী ইবনে আবু তালেব রাযিঃ থেকে শুনেছি, আমি বললাম হ্যা অবশ্যই। তিনি বলেন আমি তাকে বলতে শুনেছি, প্রত্যেক উম্মতের জন্য বিপক হচ্ছে, বনু উমাইয়া।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১২ ]

___________________________________

নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন সম্পর্কে Hushaym Juwaibiri বলেন সম্পর্কে Dahhaak আমাকে বলেছিল টেকার বিন Sabrah সম্প্রতি Ohdzq শোনা 
আবু হাসান আলী ইবনে আবু তালিব থেকে , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে আমি বললাম হ্যা , আমি বললাম আমি তাঁর কথা শুনে চাবুক এর প্রতিটি জাতি 
এবং চাবুক এর এই জাতির উমাইয়াদের



হাদিস - ৩১৩
আলী ইবনে আলকামা আল আনমারী রহঃ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন, আমি হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রাযিঃ কে বলতে শুনেছি, নিশ্চয় প্রত্যেক বস্তুর জন্য এমন কিছু বিপদ এসে থাকে যা তাকে ধ্বংস করে দেয়, এই দ্বীনের জন্য বিপদ হচ্ছে বনু উমাইয়া।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৩ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন মুহাম্মদ বিন Fadil Aloamc সালেম ইবনে আবু 
Ja'd আলী বিন Alqamah Alonamara বলেন 
আমি শুনেছি আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে বলেছেন 
যে সবকিছু চাবুক পয়মাল এবং চাবুক এর এ ধর্মকে উমাইয়াদের




হাদিস - ৩১৪
হযরত আবু যর গিফারী রাযিঃ থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাঃ কে বলতে শুনেছি, বনু উমাইয়ার শাসন কাল চল্লিশ বৎসরে পৌছলে তারা আল্লাহর বান্দাদেরকে চাকর বাকর মনে করবে এবং আল্লাহর মালকে মধুময় ধারসনা করবে এবং কিতাবুল্লাহর বিধানের ব্যাপারে সন্দেহ করতে থাকবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৪ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন বাকি এর ইবন আল - ওয়ালিদ 
রশিদ বিন সাদ থেকে আবু বকর ইবনে আবী মারইয়াম থেকে এবং আবদুল কুদ্দুস 
আবু যার রা আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে তিনি বলেন 
আমি শুনেছি মেসেঞ্জার এর আল্লাহ , সাঃ যদি বলি শিশু এর নিরক্ষরতা পৌঁছে চল্লিশ নেন ক্রীতদাসদের এর আল্লাহ 
খোলা এবং মল আল্লাহ Nhla এবং বইয়ের এর আল্লাহ Dgla




হাদিস - ৩১৫
ইয়াযিদ ইবনে শরীক রহঃ থেকে বর্নিত, তিনি এরশাদ করেন, জাহহাক ইনবে কাইস রহঃ তাকে সাথে করে একটি কাপড় নিয়ে মারওয়ানের কাছে পৌছলে মারওয়ান জিজ্ঞাসা করেন, দরজায় কে দাড়ানো, বলা হলো বিশিষ্ট সাহাবী আবু হোরায়রা, তাকে অনুমতি দেয়া হলে তিনি মারওয়ানের ঘরে প্রবেশ করে বললেন, কুরাইশের কতক অবুঝ বাচ্চাদের হাতে এ উম্মতের ধ্বংস অনিবার্য।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৫ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের কাছ থেকে আব্দুল সামাদ ইবনে আবদুল Waris, বলুন 
চেয়ে বেশি বিন জন্য অসীম বিন অপবাদ থেকে হাম্মাদ ইবনে সালামা একটি অংশীদার 
যে Dahhaak বিন কায়েস তাকে পাঠানো 
মারওয়ান মলা মারওয়ান দরজা থেকে বলেন , 
বলেন আবু Hurayrah তাকে অনুমোদিত শুনে তার পরে বলে 
আমি যা আয় শুনে রসূল এর আল্লাহ সাঃ বলেছেন হতে ধ্বংস এর এই জাতি হাত এর Ogalmh 
কুরাইশ 
জ হাম্মাদ আমাকে বলেছিল আম্মার ইবনে আবী আম্মার বললেন , 
শুনেছি আবু Hurayrah বলতে হবে হতে ধ্বংস এর 
এই জাতি হাতে কুরাইশ Ogalmh




হাদিস - ৩১৬
ইবনে মাওহাব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদা মোয়াবিয়া এবং আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাছ রাযিঃ বসা ছিলেন, হঠাৎ সেখানে কোনো এক প্রয়োজনে মারওয়ান ইবনুল হাকাম প্রবেশ করেন। তিনি তার প্রয়োজন পূরন করে চলে গেলে হযরত মোয়াবিয়া তার সাথে থাকা ইবনে আব্বাস রাযিঃ কে বললেন, আপনি কি জানেন রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছন, হাকামের সন্তানের সংখ্যা ত্রিশ পর্যন্ত পৌছলে তারা আল্লাহর সম্পদকে নিজেদের সম্পদ মনে করবে, আল্লাহর বান্দাদের সাথে চাকর বাকরের ন্যায় আচরন করবে, এবং আল্লাহর কিতাবের প্রতি সন্দেহ ভাজন হয়ে উঠবে। তার কথা শুনে ইবনে আব্বাছ রাযিঃ বললেন, হ্যা। কিছু দিন পর মরওয়ান ইবনে হাকাম তার ছেলে আব্দুল মালিক ইবনে মরওয়ান কে কোনো এক প্রয়োজনে মোয়াবিয়ার কাছে পাঠালেন আব্দুল মালিক চলে গেলে মোয়াবিয়া বললেন হে ইবনে আব্বাছ তোমাকে আমি আল্লাহর নামে কসম দিয়ে বলছি, তুমি কি জানো রাসূলুল্লাহ সাঃ এর সম্বন্ধে বলেছেন, পৃথিবীতে প্রতাপশালী শাসক চারজন হবে। জবাবে ইবনে আব্বাস বললেন, হ্যা। আর তখনই মোয়াবিয়া রাযিঃ যিয়াদ ইবনে উবাইদকে ডাক দিলেন।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৬ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন Rushdin ইবনে Hiệp আবু যেমন 
ইবনে Mohb 
যে সিদ পেনা বসা এবং রয়েছে একটি পুত্র এর আব্বাস যদি তারা মারওয়ান বিন প্রবেশ 
যখন সে চলে প্রয়োজন রায় , মুয়াবিয়ার ইবনে আব্বাস বলেন , কিন্তু আপনি জানেন যে রসূল এর আল্লাহ শান্তি বর্ষিত হোক 
তাঁর তিনি বলেন যদি শিশু ত্রিশ পুরুষদের নিয়ম গ্রহণ মল সর্বশক্তিমান আল্লাহর , রাজ্য এবং ক্রীতদাসদের সহ 
খোলা এবং তার বই Dgla 
ইবনে আব্বাস বলেন , হে ভগবান , হ্যাঁ , এবং যে মারওয়ান আব্দুল মালেক জবাব দিয়েছে 
প্রয়োজন সিদ ছাড়বে যখন তিনি আব্দুল মালেক সিদ সনির্বন্ধ অনুরোধ করা ঈশ্বর বললেন , হে পুত্র এর আব্বাস , কিন্তু আপনি জানেন যে 
রসূল এর আল্লাহ , সাঃ বললেন আবু চার যোদ্ধাদের বলেন যে 
বলেন হে আল্লাহ, 
তারপর Muawiya Ziad ইবনে Obaid দাবি




হাদিস - ৩১৭
হযরত আব্দুর রহমান ইবনে আউফ রাযিঃ এর গোলাম মীনা থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এর যুগে কারো কোনো সন্তান ভূমিষ্ট হলে তার জন্য দোয়া চাইতে আল্লাহর রাসূল সাঃ এর কাছে উপস্থিত করা হতো। একদিন এভাবে দোয়ার জন্য আল্লাহর রাসূলের দরবারে মরওয়ান ইবনে হাকামকে আনা হলে তিনি বললেন, কাপুরুষের বাচ্চা কাপুরুষ! মালউনের বাচ্চা মলউন!!


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৭ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের পিতার কাছ থেকে আব্দুর রাজ্জাক বলুন 
থেকে 
বন্দর এর হুজুর আব্দুর রহমান বিন আওফ বলেন এটা শুধুমাত্র একটি দ্বারা আনা বেঁচে থাকার জন্মগ্রহণ করা হয়নি নবী শান্তি এর উপর হতে 
ঈশ্বর তাকে উপরে হতে হবে এবং বলা মই , তাকে প্রবেশ , মারওয়ান বললেন , হয় ছেলে এর স্যালামান্ডারদের স্যালামান্ডারদের ছেলে অভিশপ্ত এর 
অভিশপ্ত




হাদিস - ৩১৮
হযরত কাব রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, অতিসত্ত্বর কুরাইশের কতিপয় অবুঝ শিশু তোমাদের রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহন করবে। তারা চারন ভূমির উপর আছড়ে পড়া গরুর বাছুরের ন্যায় হবে। তাকে ছেড়ে দিলে সামনে যাপাবে তাই খেয়ে শেষ করে দিবে। আর যদি টেনে ধরো তাহলে যাকে সামনে পাবে তাকে শিং দ্বারা গুতা দিতে থাকবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৮ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আবু marauding সাফওয়ান ইবনে আমর ইবনে Obeid Shurayh সম্পর্কে আমাদের বলুন 
থেকে গোড়ালি , 
বলেন Sealy Omorkm কুরাইশ যুবক দোষী হয় মত বাম Almmaod উপর Ajagel 
তাদের হাতে থাকে ate এবং যে থেকে পলান গুঁতা উপলব্ধি




হাদিস - ৩১৯
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেছেন, আমার পরিবারের কতিপয় লোক আমার পর আমার উম্মতের উপর হত্যাযজ্ঞ চালাবে। আমাদের বিরুদ্ধে গভীর শত্রুতা করবে বনু উমাইয়া, বনু মুগীরা এবং বনু মাখযূম।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩১৯ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন থেকে ওয়ালিদ বিন মুসলিম 
আবু রাফি ইসমাইল ইবনে রাফি বলল 
আবু সাঈদ আল - আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে রসূল এর আল্লাহ পারে 
আল্লাহ তাকে আশীর্বাদ এবং আমার পরিবার পর আমাকে আরও বেশি মারাত্মক নিহত আমার জাতি কাছ থেকে যে জন্য আমাদের লোকদের 
ঘৃণা ছেলেদের এর নিরক্ষরতা এবং সন্তান ছেলে এর Makhzoom marauding




হাদিস - ৩২০
হযরত আবদ ইবনে বাজালা রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি একদিন এমরান ইবনে হোসাইন রাযিঃ কে বললাম, রাসূলুল্লাহ সাঃ এর কাছে সবচেয়ে নিকৃষ্ট লোক কারা ছিলেন, আমার কথা শুনে তিনি বললেন কথাটি কি তুমি আমার মৃত্যু পর্যন্ত গোপন করতে পারবে? জবাবে আমি বললাম হ্যা গোপন রাখতে পারব। আমার আশ্বাস পেয়ে তিনি বললেন আল্লাহর রাসূল সাঃ এর কাছে নিকৃষ্টতম লোক হচ্ছে, বনু উমাইয়া, বনু সাক্বিফ ওবনু হানীফা।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২০ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের কাছ থেকে মুহাম্মদ বিন জাফর বলুন বিভাগ এর 
মুহাম্মদ ইবনে আবী ইয়াকুব Dubby আমি শুনেছি আবু নসর হিলালি ঘটে Bjalh ইবনে আবদুল বা আব্দ বলেন 
পুত্র Bjalh বলেন , 
আমাকে বলা ইমরান ইবনে হুসেন আমাকে বলেছিলে সবচেয়ে ঘৃণ্য মানুষ রসূল এর আল্লাহ , শান্তি 
তাঁর উপর করা , 
বলেন বুদ্ধির আলী পর্যন্ত আমি মারা 
আমি বললাম হ্যা 
নিরক্ষরতা এবং Tekef এবং 
হানাফী ছেলেদের বলেন




হাদিস - ৩২১
হযরত তাবী রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, বনু উমাইয়ার জনৈক লোকের সন্তানদের চারজন বাদশাহ হবেন। সুলাইমান ইবনে আব্দুল মালিক, হিশাম, ইয়াযীদ এবং ওলীদ।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২১ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

ইবনে উয়ায়া আমাদেরকে সুলায়মান সম্পর্কে বলেন 
যে তিনি মুজাহিদদের অবস্থা সম্পর্কে বলেন। তিনি বলেন যে তিনি 
সুলায়মান ইবনে আব্দুল মালিক, হিশাম, ইয়াজিদ ও আল-ওয়াদিদ




হাদিস - ৩২২
হযরত হাসান রাযিঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এরশাদ করেন, ওলিদ নামক একজন লোক আত্নপ্রকাশ করেন, যদ্বারা জাহান্নামের বিরাট একটি অংশ ভরাট করা হবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২২ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আল হাসান বলেন 
যে আল্লাহ রসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম 
) বলেছেন যে আল ওয়ালীদ নামক একজন ব্যক্তি জাহান্নামের একটি স্তম্ভ বা এর এক কোণে পূর্ণ করবে।




হাদিস - ৩২৩
হযরত সাঈদ ইবনে আব্দুল আযীয রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাঃ এর কথা আমি শুনতে পেয়েছি তিনি বলেন, দুইজন ওমর, দুইজন ইয়াযীদ, দুই ওলীদ, দুই মরওয়ান এবং দুইজন মুহাম্মদ তোমাদের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা পরিচালনা করবেন।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৩ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন ওয়ালিদ বিন মুসলিম আমাদের বলেছেন সাঈদ বিন আবদুল আজিজ বলেন 
যে রাসূল এর আল্লাহ শান্তি বর্ষিত হোক বিক্রয়! 
আল্লাহ হতে উপরে তাকে Alakm ওমর ওমর বেড়ে যায় এবং বৃদ্ধি, নবজাত এবং Aluwalid, মারওয়ানের, মারওয়ানের 
মোহাম্মদ ও মোহাম্মদ




হাদিস - ৩২৪
হযরত ইয়াযীদ ইবনে আবু হবীব রহঃ থেকে বর্ণিত, একথা মানুষের মাঝে প্রসিদ্ধ যে, যদি কোনো খলীফার চোখ টেরা হয় তখন তোমার সামর্থ্য থাকলে শাম থেকে মিশরের দিকে বেরিয়ে যাও। অবশ্যই সেটা হিশাম ইবনে আব্দুল মালিক খলীফা হওয়ার পূর্বের ঘটনা।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৪ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের ছেলে Rushdin বলুন এর Hiệp 
ইয়াযীদ ইবনে আবী হাবীব বলেন এটা ছিল 
মানুষ খলিফা অনুমান করেন যে, কটাক্ষ সিরিয়া মিশরের থেকে স্নাতক বলেন এবং তারপর তা করতে 
আগে উত্তরাধিকার এর হিশাম




হাদিস - ৩২৫
হযরত আবু কুবাইল রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আব্দুল মালিক ইবনে মরওয়ানের কাছে সংবাদ আসে যে, তার একটি সন্তান ভুমিষ্ট হয়েছে এবং তার আম্মা তার নাম রেখেছে হিশাম। একথা শুনে তিনি বললেন, তাকে যেন আল্লাহ তাআলা জাহান্নামে নিক্ষেপ করে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৫ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন colligation বিন ইসমাইল 
আবু যেমন যে আবদুল মালেক 
বিন মারওয়ানের এসে থেকে তাকে সংবাদদাতা তাকে বলেন যে তিনি ছিলেন জন্মগ্রহণ করার তাকে এবং যে তাঁর মা নামক গোলাম Hishama 
ঈশ্বর Hishmha বলেন 
মধ্যে আগুন




হাদিস - ৩২৬
হযরত মাকহুল রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমার কাছে রাসূলুল্লাহ সাঃ থেকে সংবাদ পৌছেছে তিনি বলেন, কুরাইশের মধ্যে চারজন যিনদীক হবে, তার পিতা বলেন, আমি সাঈদ ইবনে খালেদ কে বলতে শুনেছি, তিনি আবুযাকারিয়া থেকে তেমনই উল্লেখ করেছেন, অতঃপর তিনি এরশাদ করেন তারা হলেন, মরওয়ান ইবনে মুহাম্মদ ইবনে মরওয়ান ইবনে হাকাম, ওলীদ ইবনে ইয়াযীদ ইবনে আব্দুল মালিক ইবনে মরওয়ান ইবনে হাকাম, ইয়াযীদ ইবনে খালেদ ইবনে ইয়াযীদ ইবনে মোয়াবিয়া ইবনে আবু সুফিয়ান এবং সাঈদ ইবনে খালেদ, যিনি খোরাসানে ছিলেন।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৬ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন তার বাবার কাছ থেকে হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মারওয়ান সাঈদ বিন খালেদ Makhoul বলেন 
যে রাসূল এর আল্লাহ , সা উপর বিক্রয়! সাইদ করার থেকে হতে কুরাইশ চার ধর্মদ্রোহীতা 
পিতা বললেনঃ , এবং 
আমি শুনেছি সাঈদ বিন খালেদ উল্লেখ ইবনে আবী জাকারিয়া অতএব মারওয়ান বিন মোহাম্মদ বিন বলেন 
মারওয়ান বিন শাসন ব্যবস্থা ও ওয়ালিদ বিন ইয়াযীদ ইবনে আবদুল মালিক বিন মারওয়ান ইবনুল - হাকাম এবং ইয়াযীদ বিন খালিদ বিন 
ইয়াযীদ বিন মুয়াবিয়ার ইবনে আবী সুফিয়ান সাঈদ ইবনে খালিদ , যারা Khurasaan ছিল




হাদিস - ৩২৭
হযরত আবু জাকারিয়া রাযিঃ রাসূলুল্লাহ সাঃ থেকে বর্ণনা করেন, তিনি বলেন আমি রাসূলুল্লাহ কে তাদের নাম জিজ্ঞাসা করলে পূর্বের হাদীসের মত তাদের নাম বলেছেন।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৭ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন আব্দুল 
পবিত্র এক শুনে ইবনে আইয়াশ আমাকে সাঈদ ইবনে খালিদ বলেন 
থেকে Makhoul থেকে নবী , শান্তি হতে উপরে 
তাকে 
ও সাঈদ বিন খালেদ [ইবনে] আবু জাকারিয়া থেকে নবী সা তিনি বলেন , তার মতো , 
আমি তাকে জিজ্ঞেস করলাম সম্পর্কে তাদের যে ভালো Vsmahm পারেন




হাদিস - ৩২৮
হযরত সাঈদ ইবনুল মুসাইয়াব রহঃ থেকে বর্নিত, তিনি বলেন, আমার ভাইয়ের একটি সন্তান ভুমিষ্ট তারা তার নাম রাখে ওলীদ। একথাটি রাসূলুল্লাহ সাঃ কে বললে তিনি বলেন, তোমরা তা এমন নাম রেখেছ সেটা এই উম্মের ফেআউনের নাম হবে। ওলীদ এই উম্মতের জন্য তৎকালীন যুগের ফেরআউন থেকে আরো মারাত্নক হবে। বর্ণনাকারী যুহরী রহঃ বলেন, যদি ওলীদ ইবনে ইয়াযীদ খলীফা সেই হবে উল্লিখিত ওলীদ, না হয় ভবিষ্যৎ বানীকৃত ওলীদ হবে, ওলীদ ইবনে আব্দুল মালিক।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৮ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন Awzaa'i থেকে ওয়ালিদ বিন মুসলিম 
সিফিলিস 
ইবনে Musayyib বলেন , ছিল বলা তাকে আমার ভাই হযরত উম্মে সালামা গোলাম জন্ম এল ওয়ালিদ বিবৃত রসূল যে এর 
আল্লাহ , সাঃ বলেন Smeetmoh নাম Fraantekm আছে হবে মধ্যে হতে 
এই জাতি একটি 
লোকটি বলল করতে তাকে , ওয়ালিদ হয় একটি তার মানুষের উপর ফেরাউনের এই জাতির উপর মন্দ , 
বলেন সিফিলিস 
নবজাতক ইবনে ইয়াসীদের ব্যবহার একই বা অন্য কোনও ব্যক্তি ওয়ালিদ বিন আব্দুল মালিক




হাদিস - ৩২৯
হযরত আইউব ইবনে বারীর রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হাজ্জজ বিন ইউসুফের সাথে আসমা বিনতে আবু বকর রাযিঃ এর ঘরে প্রবেশ কারীদের একজন আমাকে বর্ণনা করেছেন, হাজ্জাজ আসমা রাযিঃ এর কাছে জানতে চাইলো, তুমি রাসূলুল্লাহ সাঃ থেকে কি শুনেছ? জবাবে তিনি বললেন, আমি আল্লাহর রাসূল সাঃ কে বলতে শুনেছি, বনু সাকিফের মাঝে একজন কাযযাব হবে এবং একজন মুবীর হবে। কাযযাবের ব্যাপারে তো আমরা ইতি মধ্যে অবগত হয়েছি, আর মুবীর হচ্ছো তুমি একথা শুনে হাজ্জাজ বলল, হ্যা আমি মোনাফেকদের মুবীর।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩২৯ ]

___________________________________


নাঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন Damra বিন 
রাবিয়া 
আইয়ুব বিন pourer আমাকে বলেছিল যারা উপর তীর্থযাত্রীদের সঙ্গে প্রবেশ কন্যা এর আবু বকর বলেন করার 
তার কি আমি থেকে শোনা রসূল এর আল্লাহ , সাঃ 
বলেন আমি শুনেছি মেসেঞ্জার এর আল্লাহ , শান্তি 
হতে পরে তার বলছেন , Thaqeef হতে একটি মিথ্যাবাদী এবং সাম্রাজ্যের পারেন একটি মিথ্যাবাদী হারিয়ে আমরা জানতাম এবং হয় Alambar তুমি 
বলেছিলে আমি মুনাফিকদের মুনাফিক


হাদিস - ৩৩০
হযরত সুহাইল যাকওয়ান রহঃ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হাজ্জাজ বিন ইউসুফ হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে যুবাইর রাযিঃ কে শহীদ করার আসমা বিনতে আবু বকর রাযিঃ এর কাছে প্রবেশ করলে আসমা তাকে জিজ্ঞাসা করলো ইবনে যুবায়েরের সাথে কি আচরণ করেছ, জবাবে সে বলল, তাকে আল্লাহ তাআলা হত্যা করেছেন। একথা শুনে আসমা বললেন, আল্লাহর কসম! তুমি একজন রোজাদার এবং রাত্রে এবাদতকারী কে হত্যা করেছ, আমি রাসূলুল্লাহ সাঃ কে বলতে শুনেছি, বনু সাকিফ থেকে তিন ধরনের লোকের আত্নপ্রকাশ হবে। কাযযাব, যায়আল ও মুবীর। কাযযাব সম্বন্ধে তো আমরা ইতোমধ্যে অবগত হয়েছি, মুবীর হচ্ছ, তুমি, তবে যায়আল সম্বন্ধে এখনো জানতে পারিনি। বর্ণনাকারী বলেন, ইবনে যুবাইরকে শুলিতে ঝুলানো হলে তার নিচ দিয়ে আব্দুল্লাহ কইবনে ওমর অতিক্রম করতে গিয়ে বললেন, ইবনে যুবাইর তুমি সফলকাম হয়েছো, তবে তোমার উম্মতই হচ্ছে, নিকৃষ্ঠতম উম্মত।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩০ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন পুত্র এর অ্যারন উপর 
একজন বন্দী সুহাইল ইবনে থেকে 
Dhakwaan তিনি বললেন হত্যা এর তীর্থযাত্রীদের ইবন আল - জুবায়ের কন্যা প্রবেশ এর আবু বকর বলেন , কি ইবনে করেনি 
আল - জুবায়ের 
বলেন , ঈশ্বর নিহত তাকে 
বললেন , কিন্তু আল্লাহ Soama জমিন হত্যা করেছে আমি শুনেছি মেসেঞ্জার এর আল্লাহ , 
শান্তি হতে তার উপর বলতে Thaqeef তিন মিথ্যাবাদী এবং Alveal এবং Alambar আসে আউট 
হিসাবে জন্য 
মিথ্যাবাদী এবং এটি Alambar হয়েছে.এটি Alambar আমরা যা দেখলাম পর বলেছেন পারেন Alveal 
তিনি 
Fmr পুত্র এর ওমর আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে যেমন ইবন আল - জুবায়ের বলেন , ক্রুশে দিয়ে 
সফল জাতি আপনি হয় মন্দ




হাদিস - ৩৩১
হযরত নাফে রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হযরত ওমর রাযি. এরশাদ করেন, আমার বংশধর থেকে চেহারায় দাগ বিশিষ্ট একজন রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। গোটা দেশ তিনি ইনসাফ দ্বারা পরিপূর্ণ করে দিবেন। বর্ণনাকারী নাফে রহ. বলেন, আমার ধারনা মতে তিনি হচ্ছেন, ওমর ইবনে আব্দুল আযীয রহ.।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩১ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের Juwayriyah বিন Nafie থেকে উসমান বিন আবদুল হামিদ বলুন তিনি বলেন নাম এর 
ওমর 
ইবনুল - খাত্তাব আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে হতে একটি মুখ লোক এবং আমি নিম্নলিখিত শেন Vimloha শুধু Nafie বলেন , এবং 
আমি মনে করি তিনি শুধুমাত্র ওমর ইবনে আবদুল আজিজ



হাদিস - ৩৩২
হযরত শওযব রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদিন ওমর ইব্নে আব্দুল আযীয রহ. তার পিতার আস্তাবলে প্রবেশ করলে, তার পিতার একটি ঘোড়া তাকে আঘাত করে। তিনি সেখান থেকে বের হয়ে আসছিলেন, যে অবস্থায় তার চেহারা থেকে রক্ত প্রবাহিত হচ্ছিল এ অবস্থা দেখে তার পিতা বললেন, হয়তো তুমি বনু উমাইয়ার জন্য মারাত্মক আঘাতকারী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩২ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

তিনি আমাদেরকে 
শোয়ায়েবের পুত্র সম্পর্কে বলেছিলেন, ওমর বিন 
আবদুল আজিজ তার বাবার কল্যাণে তাঁর বাবার কাছে গিয়ে তাঁর বাবার কাছে এসেছিলেন এবং তাঁর মুখে রক্ত ​​প্রবাহিত হয়ে বলেছিলেন, তাঁর পিতা 
অশিক্ষিত




হাদিস - ৩৩৩
বিশিষ্ট সাহাবী হযরত হোযাইফা ইবনুল ইয়ামান রাযি. বলেন, আমীরুল মুমিনীন ওসমান ইব্নে আফফান রাযি. এর পর বনু উমাইয়া থেকে মোট বারোজন রাষ্ট্র ক্ষমতা গ্রহনকারী বাদশাহ হবেন। তাকে বলা হলো তারা কি খলীফা হিসেবে ক্ষমতাসীন হবেন, জবাবে তিনি বললেন, না, বরং বাদশাহ হবেন।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৩ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

Rushdin ছেলে Hiệp খালেদ ইবনে আবী ইমরান সম্পর্কে আমাদের বলুন বলেন 
হুযাইফা ইবনুল - ইয়ামন আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে পরে সেখানে হবে উসমান মধ্যে হতে , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাঁর বারোজন প্রেরিতকে একপাশে রাজা 
এর উমাইয়া , বলেন তিনি বলা হয় , কিন্তু রাজাদের এর প্রচ্ছন্নভাবে




হাদিস - ৩৩৪
হযরত আবু উমাইয়া আল-কালব্বী রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি ইয়াযীদ ইব্নে আব্দুল মালিকের খেলাফত কালীন বর্ণনা করেন, মোয়াবিয়া রাযি. এর এন্তেকালের পর ইবনে যুবাইয়ের ফেৎনার সময় যখন লোকজনের মাঝে মতানৈক্য দেখা দেয় তখন আমরা প্রবীণ এক শেখ এর কাছে আগমন করি, যিনি জাহিলিয়্যাতের যুগ পেয়েছেন এবং বার্ধক্যের কারণে তার উভয় ভ্রু দুইচোখের উপর এসে পড়েছে। আমরা তার কাছে জানতে চাইলাম, এই ফেৎনা ও লোকজনের মাঝে মতানৈক্য ও বিশৃঙ্খলার কি সমাধান হতে পারে? আমাদের কথা শুনে তিনি একটি বেন্ডেজ আনতে বললেন, সেটা আনা হলে তার সাহায্যে তিনি ভ্রুর চামড়া উপরের দিকে উঠিয়ে রেখে আমাদেরকে ভালো করে দেখনে। অতঃপর বললেন, এমন ফেৎনাকালীন তোমরা তোমাদের ঘরের ভিতর অবস্থান গ্রহণ করবে। কেননা, অতিসত্বর বনু ওমাইয়ার এক লোক দীর্ঘ বাইশ বৎসর পর্যন্ত তোমাদের বাদশাহ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। তার মৃত্যুর পর অল্প কিছুদিনের মধ্যে বনু উমাইয়ার অনেকে দায়িত্ব পালন করবে। এরপর চোখে চিহ্নবিশিষ্ট হিশাম ইব্নে আব্দুল মালিক রাষ্ট্র ক্ষমতা গ্রহণ করে। তিনি ক্ষমতাগ্রহণ করার পর এতবেশি টাকা জমা করবে, যা ইতিপূর্বে কেউ জমা করেনি। সে উনিশ বৎসর জীবিত থেকে মারা যাবে। অতঃপর জনৈক যুবক রাষ্ট্র ক্ষমতা গ্রহণ করে লোকজনকে অধিক পরিমানে দান করবে যা ইতিপূর্বে আর কেউ করেনি। এভাবে চলতে থাকলে তার বংশের আরেকজন লোক তার উপর আঘাত করলে তিনি মারা যাবেন। ঐ লোকের হাতও রক্তে রঞ্জিত হয়ে যাবে। এরপর জামীবার দিক থেকে একজন মুদাব্বির আগমন করবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৪ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ - 334

আমাদের বলুন ওয়ালিদ আবু Obeida 
Almhdjaa 
আবু নিরক্ষরতা কালবী Hdthm থেকে উত্তরাধিকার এর ইয়াযীদ ইবনে আবদুল মালেক বলেন কি বিভিন্ন 
মানুষ সিদ এবং রাষ্ট্রদ্রোহ পর ইবন আল - জুবায়ের এসে একটি বুড়ো প্রাচীনকালের উপলব্ধি করেছিলেন অজ্ঞতা পতিত হয়েছে 
তার চোখের উপর ভ্রু । আমরা আমাদের সময় এবং বিভিন্ন মানুষের যা বিন্দু আমরা বলেছিলাম সম্পর্কে আমাদের বলুন বলেন 
তিনি দোররা দ্বারা গ্যাং FSB নামক , ভ্রু এমনকি তার চোখ থেকে উঠে Vobesrna তিনি উল্লেখ কাছে আপনি যে 
Tlsmoa তোমাদের গৃহে, এই বিষয়ে একজন মানুষ হয়ে যাবে উমাইয়া Alakm Tntin বিশ 
বছর এবং তারপর মারা যায় , তারপর Alakm তাকে Snaat মধ্যে Attabon উত্তরাধিকারী পর সহজ এমনকি Alakm মানুষ 
মার্ক তার চোখ মানে হিশাম বিন আবদুল মালিক একসঙ্গে টাকা একত্রিত করেন যে কেউ কখনও একত্রিত হয় না ই লাইভ নয়টি 
দশ বছর এবং তারপর মারা যায় , তারপর একটি যুবক যাকে Alakm মানুষ দেয় উপহার দেন নি এটা একটা চুমু এবং ছিল 
দ্বারা lapped একটি মানুষ থেকে তার পরিবার ছিল না একটি লুকানো সামান্য হাত উপর এবং Vtrac রক্ত নিহত এবং তারপর আসে করার আপনি
এখানে থেকে পরিকল্পিত এবং দ্বীপ থেকে নির্দেশিত




হাদিস - ৩৩৫
বিশিষ্ট হাদীস বিশারদ ইব্নে শিহাব যুহরী রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি জানতে পেরেছি, প্রখ্যাত সাহাবী আব্দুল্লাহ ইবনে সালাম রাযি. আমীরুল মুমিনীন ওসমান ইব্নে সালাম রাযি. আমীরুল মুমিনীন ওসমান ইব্নে আফফানকে শহীদ করার পূর্বে ঘোষণা দিয়েছেন, মাত্র দুই মাসের মধ্যে ওসমান ইব্নে আফকানকে হত্যা করা হবে। একথা শুনে মারওয়ান খুবই রাগান্নিত অবস্থায় বারবার ওসমানের ঘরে প্রবেশ করতে চাইলে তাকে বাধা দেয়া হয়। আব্দুল্লাহ ইবনে কাইস রহ. ইব্নে শিহাব যুহরীর কাছে জানতে চাইলেন এ বিষয়টি এখনো লোকজন জানেনা, এ ব্যাপারে আরো কিছু আপনার কাছে জানা থাকলে আমাদেরকে জানাতে পারেন। এ কথাগুলো হিশামের শাসণামলে হচ্ছিল। আব্দুল্লাহ ইব্নে কাইসের কথা শুনে ইব্নে শিহাব যুহরী বলেন, তোমরা কি হিশামের রাজত্ব থেকে পরিত্রাণের ব্যাপারে চিন্তা করছো? সে কিন্তু দুই বৎসরের মধ্যে মারা যাবে। হযরত যুহরীকে জিজ্ঞাসা করা হলো, হিশাম স্বাভাবিকভাবে মারা যাবে নাকি তাকে হত্যা করা হবে। যুহরী জবাব দেয়, হ্যাঁ সে স্বাভাবিকভাবে মারা যাবে। হিশামের পর রাষ্ট্র ক্ষমতায় কে আরোহন করবে সে সম্বন্ধে জানতে চাওয়া হলে যুহরী জবাব দেয় তার বংশ একজন বালক রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণ করবে। তার ক্ষমতা কয়দিন থাকবে জিজ্ঞাসা করলে, তিনি বলেন, শিশুদের ঘুমের সমপরিমান সে ক্ষমতায় থাকে। অতঃপর ইবনে শিহাব যুহরীর কাছে জানতে চাওয়া হয়, যে মারা যাবে নাকি হত্যা করা হবে। জবাবে তিনি বলেন, বরং তাকে হত্যা করা হবে। তারপর রাষ্ট্র ক্ষমতা কার হাতে থাকবে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জাযিরার দিকে ইশারা করে বলেন, এদিক থেকে আসবে। সুলাইমান ইব্নে হিশাম তখন জামিরার আমীর থাকবে। তার পরিচয় জানতে চাইলে যুহরী বলেন, তার নাম এবং তার পিতার নাম হবে আট হরফ বিশিষ্ট। যুহরীকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে, তার রাজত্বে স্থায়ীত্ব কতদিন হবে। জবাবে তিনি বলেন, ভিজা কাপড়কে একস্থান থেকে সরিয়ে অন্য স্থানে দেয়ার সময় পরিমান থাকবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৫ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন আব্দুল্লাহ বিন মারওয়ানের আবু সুফিয়ান বলল , 
আমাকে বলেছিলেন উপর খুশি ছেলে 
আব্দুল্লাহ ইবনে সালাম আগে বলেন যে যুহরী বলেন মৃত্যুর এর বিক্রয়! 
ওসমান আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে , তিনি দুই মাস নিহত Vothb মারওয়ান ওসমান নি প্রবেশ করতে উন্মাদ 
পর্যন্ত এখনও করতল এর তাকে , বললেন আব্দুল্লাহ বিন কায়েস সিফিলিস এই জ্ঞান হয় মানুষের জন্য স্টক না 
আপনি এটা শিখেছে করতে বলুন আমাদের মধ্যে, আমিরশাহী এর আবু হিশাম বলেন কাছে তাকে , সিফিলিস আমি চান বাকি হিশাম 
হয়েছে হয়েছিল যে এটিকে দুটি বছর বা দণ্ডপ্রাপ্ত হয় তখন তাকে বলা হয়েছিল মৃত্যু অথবা হত্যা বললেন , কিন্তু মৃত্যুর তাকে বলা হয়েছিল 
এই যুবক ক্বা পর মানুষ তার বাড়ি , তখন তাকে বলা হয়েছিল , তিনি বলেন, কি একটা ছেলে বলা হয়েছিল করার যেমন মরা যেমন মৃত্যু ঘুমের 
বা নিহত , কিন্তু বলা হয় বলেন করা নিহত পরে তিনি বলেছেন যে তার কাছ থেকে আসে নার তীক্ষ্ন দ্বীপ 
এবং সুলায়মান ইবনে হিশাম যে প্রতিদিন , আমির এর দ্বীপ 
তাকে বলেন তিনি বলেন, কি তার নাম এবং নাম এর তার পিতা , আট 
অক্ষর , এবং কি হয়েছে বলেন হয়েছে সময়কাল
তিনি বলেছিলেন যে, ধর্মাচরণের স্থান থেকে ভক্তরা একটি স্থান দখল করেছিলেন




হাদিস - ৩৩৬
হযরত হেলাল ইব্নে এসাফ রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন আমাদেরকে সংবাদ দিয়েছে বারীদ, যিনি ইবনে যুবাইরের নিকট মুখতারের মাথা নিয়ে এসেছে। তিনি বলেন, যখন আমি তার সামনে মুখতারের মাথা রাখি, তখন তিনি আমাকে বললেন, আমার রাষ্ট্র ক্ষমতা নিয়ে যার যা কিছু বলেছেন সব কিছু আমি হুবহু পেয়েছি। কিন্তু একমাত্র এ ব্যাপারটি ছাড়া। যেহেতু তিনি আমাকে বলেছেন, সাফিক বংশের একলোক আমাকে হত্যা করবে, অথচ আমিই তাকে হত্যা করতে সক্ষম হয়েছি।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৬ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন Shamar বেন আত্তিয়া আবু ওসামা Aloamc সম্পর্কে হেলাল ইবনে Isav বলেন , 
আমাকে বলেছিলেন মেইল 
যে ইবন আল করার জন্য চয়ন মাথা এসেছিলেন - জুবায়ের বলেন যা সে সামনে রাখা , বলেন কি আমাকে বলেছিল মধ্যে গোড়ালি 
Soltani কিছু শুধুমাত্র Jtah শুধুমাত্র বলেছেন যে তিনি আমাকে বলেছিলেন যে, তিনি হবে থেকে Thaqeef আমাকে দেখিয়েছে আমাকে মানুষ হত্যা 
আমি কে তাকে মেরেছে?




হাদিস - ৩৩৭
আমর ইবনে দ্বীনার রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হযরত আবু হুরায়রা রাযি. এরশাদ করেছেন, আব্দুল্লাহ ইব্নে যুবাইরের ফেৎনা যাবতীয় ফেৎনার অন্যতম।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৭ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন ইবনে মুয়াম্মার Kthim আমর ইবনে থেকে আব্দুর রাজ্জাক 
দিনার বলেন 
আবু Hurayrah , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে রাষ্ট্রদ্রোহ ইবন আল - জুবায়ের Hasat রাষ্ট্রদ্রোহ এর Haysa




হাদিস - ৩৩৮
হযরত আবু কুবাইল রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, যখন আব্দুল্লাহ ইব্নে ওমর রাযি. দেখতে পেলেন যে, ইবনুয যুরাইরের সঙ্গীদের মাথা বল্লমÑবর্শার মাথায় করে আনা হচ্ছে। তখন তিনি বললেন, তোমরা তাদের মাথা নিয়ে তামাশা করছ অথচ তোমরা জানোনা তাদের রূহগুলো এখন কোথায় অবস্থান করছে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৮ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের colligation বলুন 
আমার পিতা সম্পর্কে আগে তিনি বলেন যখন ইবনে ' উমরের অলটারনেটর মালিকদের দেখেছি এর ইবন আল - জুবায়ের 
উপর জন্মদান বর্শা ও নলখাগড়া বলেন Taathadon Balras প্রফুল্লতা পরিণত Tdron না




হাদিস - ৩৩৯
হযরত আবু ওয়ায়িল রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন আমার সাথে আবুল আলা যিলা ইব্নে যুকরের সাথে সাক্ষাৎ হলে জিজ্ঞাসা করলাম, হে আবুল আ’লা! তোমার পরিবারের কোনো সদস্য কি মহামারীতে আক্রান্ত হয়েছে? জবাবে তিনি বললেন, তারা ফেৎনাকালীন ভূল করাটা আমার কাছে মহামারীতে আক্রান্ত হওয়ার চেয়ে আরো মারাত্মক হবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৩৯ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের বলুন পুত্র এর সুখী সুফিয়ান সুলেইমান 
আবু ওয়ায়েল তিনি বলেন , পূরণ সঙ্গে আবু 
আলা লিংক বিন জাফর আমি বললাম , হে আবু আলা এই ব্যথা মানে কাছ থেকে কিছু কি যে আপনার পরিবার প্লেগ 
আমি বললাম , কারণ Akhtehm Okhov আমাকে ভোগে




হাদিস - ৩৪০
আবু সালমা রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন আমি আবু হুরায়রার সুস্থতার জন্য দোয়া করলে তিনি বলেন হে আল্লাহ্্ সেটা ফিরিয়ে এনোনা। অতঃপর তিনি বললেন, অতিসত্ত্বর মানুষের কাছে এক যুগ আসবে তখন। পৃথিবী থেকে মৃত্যুবরণ করাটা লাল স্বর্ণ থেকেও বেশি পছন্দনীয় হবে।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৪০ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের ঈসা ইবনে ইউনুস সম্পর্কে আমাদের বলুন 
Awzaa'i ইয়াহিয়া ইবনে আবী আবু সালামা থেকে অনেক 
আবু Hurayrah থেকে , আল্লাহ হতে পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে আমি তাঁকে বলতে শুনেছি তাকে 
আমি বললাম , হে ভগবান , আরোগ্য আবু Hurayrah 
বলেন , হে ভগবান , তারপর ফিরে দ্বারা তিনি হয় সম্বন্ধে লোকেদের কাছে আসতে 
যে কোনো সময় মৃত্যু হয় যেখানে আমি ভালোবাসি লাল Alzhbh জগতে




হাদিস - ৩৪১
হযরত আবু ওয়ায়েল রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদিন হযরত আব্দুল্লাহ ইব্নে মাসউদ রাযি. ওসমান ইবনে আফফান সম্বন্ধে আলোচনা করতে গিয়ে বলেন, মূলতঃ তাকে কৃপণতাই ধ্বংস করে দিয়েছে, অনিষ্টতার পায়গামটি কতই না ভয়ংকর। আমরা তাকে বললাম, আপনি কি বের হবেননা, আপনার সাথে আমরাও বের হতে পারতাম। জবাবে তিনি বললেন, দীর্ঘ মেয়াদী কোনো বাদশাহ হওয়ার চাইতে পাহাড়ের উঁচু স্থান থেকে লাফিয়ে পড়া আমার জন্য অনেক সহজ।


[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৩৪১ ]

___________________________________


নঈম বিন হাম্মাদ

আমাদের ইবনে বলুন 
আল - মুবারক Aloamc 
আবু ওয়ায়েল আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ থেকে বলেন ওসমান আল্লাহ পারে হতে সন্তুষ্ট সঙ্গে তাকে এক 
দিন , তিনি বলেন Ohlkh অভাব Bist আস্তরণের বা আবরণের এর খারাপ বলেন , আমরা তাকে বলি করতে আপনার সাথে Vnkrj বাইরে যেতে , 
তিনি বলেন , কারণ যখন করছেন একটি ক্ষুদ্রতর পুরাদস্তর পর্বত এর আলী যে করছেন যখন একটি রাজা বিলম্বিত 
থেকে অনাক্রম্যতা 
রাষ্ট্রদ্রোহ এবং এটা তাদের বন্ধ করতে এবং মুস্তাহাব থেকে যুদ্ধ, অন্তরণ এবং ঘৃণা করা থেকে বিরত থাকুন 
অনুমানধর্মী তার





Desktop Site